পিঁপড়ারা সারি বেঁধে চলে কেন?

আবদুল গাফফার রনি, প্রদায়ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৭ অক্টোবর ২০১৬, ১৫:৩০

পিঁপড়া সব সময় সারি বেঁধে চলে। একটু খেয়াল করলে দেখা যাবে, একটা পিঁপড়া যে দিক চলছে অন্যরাও তাকে নির্ভুলভাবে অনুসরণ করছে। হঠাৎ যদি পিঁপড়ের লাইনের ভেতর হাত ঢুকিয়ে দেনতো দেখবেন পেছনের পিঁপড়াগুলো দিশেহারা হয়ে গেছে। কিুছুক্ষণ এলোমেলোভাবে ঘুরবে ওরা। তারপর হয়তো আবার লাইন করে চলবে। কিন্তু নতুনভাবে লাইন তৈরি করতে বেশ কিছুক্ষণ সময় নেয় ওরা।

পিঁপড়ার লাইন ভাঙার পর সামনের সাথীদের দেখতে পেড়েছিল পিঁপড়ারা, তবুও কেন এই সাময়িক বিশৃঙ্খলা। দেখতে না পেলে অবশ্য কথা ছিল।

আসলে পিঁপড়া খাদ্যের জন্য প্রায় সারাদিন ঘোরাফেরা করে। বাসা ছেড়ে পাড়ি দেয় বহু পথ। ওদের চলায় যদি শৃঙ্খলা না থাকে থাকে তা হলে পথ হারিয়ে যেতে পারে। সেক্ষেত্রে পথ চিনে বাড়ি ফেরা কঠিন হয়ে যায়। সত্যি বলতে কি পিঁপড়ের অত্যন্ত শৃঙ্খল প্রাণী। তাই পথ চলার সময় সারি বেঁধে বা লাইন করে চলে। এজন্য ওরা চোখের দৃষ্টিশক্তির ওপর নির্ভর করে বসে থাকে না। দৃষ্টি শক্তির ওপর নির্ভর করে চললে হিসেবটা অন্যরকম হতো।

কেউ যদি পিঁপড়ের সারি ভেতর হাত ঢুকিয়ে দিত তখন ওরা একটু ঘুরে চলে যেত। কিছুক্ষণের জন্য বিশৃঙ্খল হয়ে পড়ত না। আসলে পিঁপড়ে চলার সময় রাস্তার ওপর এক ধরনের হরমন ছড়িয়ে যায়। সুগন্ধি হরমন। এই হরমন থাকে পিঁপড়ার শরীরের পেছন দিকে। হুলের ঠিক নিচে। পিঁপড়া যখন চলে তখন তার হুল মাটি স্পর্শ করে চলে। হুলের নিচ থেকে তখন হরমন নিঃসৃত হয়ে ছড়িয়ে যায় মাটিতে। পেছনের পিঁপড়ে হরমনের গন্ধ শুঁকে শুঁকে অগ্রগামীর পথ অনুসরণ করে। এতে পিঁপড়াদের পথ হারানোর কোনও ভয়ই থাকে না।

(ঢাকাটাইমস/৭অক্টোবর/এজেড)

সংবাদটি শেয়ার করুন

ফিচার বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত