মাদারীপুরের সেই পুকুর ভরাট বন্ধে হাইকোর্টের নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১০ অক্টোবর ২০১৬, ১৫:২৫

মাদারীপুরে পুলিশ ফাঁড়ি সংলগ্ন সরকারি পুকুর ভরাট বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। মাদারীপুরের জেলা প্রশাসক,পুলিশ সুপার, মাদারীপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই এই ব্যবস্থা নিতে হবে।

এক রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি শেষে বিচারপতি মো. রেজাউল হক ও বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেনের বেঞ্চ এই আদেশ দেন। আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন  মনজিল মোরসেদ।

স্থানীয় ছাত্রলীগ ও যুবলীগ কর্মীরা জলাশয়টি ভরাট করছে বলে অভিযোগ উঠেছে। মাদারীপুর পৌরসভা একাধিকবার তাগাদা দিলেও জেলা প্রশাসক এ বিষয়ে কোনো উদ্যোগই নেয়নি।

গত ৯ অক্টোবর পুকুর ভরাট বন্ধে হিউম্যান রাইটস পিস ফর বাংলাদেশের পক্ষে আইনজীবী মনজিল হাইকোর্টে রিট আবেদন করেন। ওই পুকুর রক্ষায় সুপ্রিম কোর্টের আরেক আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দও রবিবার হাইকোর্টে রিট করেন।

মাদারীপুর শহরের পুরান বাজারের লঞ্চঘাট এলাকায় পুকুরটি অবস্থিত। প্রায় ২০০ বছরের পুরোনো দুই একর তিন শতাংশের এই পুকুরের মালিক জেলা প্রশাসন। পুকুরটি ভরাটের পাঁয়তারার বিষয়টি টের পেয়ে এটি রক্ষা করার অনুরোধ জানিয়ে মাদারীপুর পৌরসভার মেয়র খালিদ হোসেন গত এক বছরে জেলা প্রশাসককে তিন দফা চিঠি দিয়েছেন। কিন্তু জেলা প্রশাসক কামাল উদ্দিন বিশ্বাস বলেছেন, নৌমন্ত্রীর নির্দেশ ছাড়া তিনি কোনো ব্যবস্থা নিতে পারবেন না।

গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, পুকুরটি ভরাট প্রক্রিয়ার সঙ্গে রয়েছেন নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খানের চাচাতো ভাইয়ের ছেলে সাইফুর রহমান রুবেল খান, জেলা যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম ও জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তানভীর মাহমুদ।

ঢাকাটাইমসের সঙ্গে আলাপকালে সরকার দলের সমর্থক এই তিন জন পুকুট ভরাটে নিজেদের সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করেছেন। তাদের দাবি, উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য প্রশাসনের নির্দেশেই এই কাজ করছেন তারা। তবে কোনো উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য পুকুর ভরাট করার নির্দেশনা দেয়া হয়নি বলে নিশ্চিত করেছেন কর্মকর্তারা।

(ঢাকাটাইমস/ ১০ অক্টোবর/ এমএবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আদালত বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত