৪০০ কি. মি দূরে বসে মোবাইল ফোনে রায় ঘোষণা

পরিমল মজুমদার, কুড়িগ্রাম থেকে
| আপডেট : ১১ অক্টোবর ২০১৬, ১৮:০৩ | প্রকাশিত : ১১ অক্টোবর ২০১৬, ১৭:৫৫

কর্মস্থল থেকে প্রায় ৪০০ কিলোমিটার দূরে থাকলেও ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে তিন জনকে দণ্ড দিয়েছেন কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রের আব্দুল্লাহ আল মামুন তালুকদার। তিনদিন পর তিনি এলাকায় ফিরে এই কাগজে সই করেছেন।

বিচারকাজে বিচারক অনুপস্থিত থেকে কোনো তাৎক্ষণিক কোনো দণ্ড দিতে পারেন কিনা সেই এখতিয়ার নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।  যদিও বিচারকের দাবি, এ ক্ষেত্রে আইনের কোনো ব্যত্যয় হয়নি।

পুলিশ জানায়, গত শুক্রবার রাতে মাদক সেবনের দায়ে উপজেলার মাদারটিলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠ থেকে তিন যুবককে আটক করে পুলিশ।  ওই রাতেই ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে তাদেরকে সাজা দেয়া হয়। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবদুল্লাহ আল মামুন তালুকদার এ সময় ঢাকায় থাকলেও তিন যুবককে দুই হাজার টাকা করে জরিমানা ও অনাদায়ে তিন মাসের কারাদণ্ড দেন তিনি মোবাইল ফোনে। জরিমানা পরিশোধের পর মুক্তিও পান তারা। আর রবিবার এ সংক্রান্ত সব নথিপত্রে সই করেন বিচারক।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে আব্দুল্লাহ আল মামুন তালুকদার ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘ওসি আমাকে মোবাইল ফোনে তাকে জানান যে, তিনজন মাদকসেবীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের ভ্রাম্যমাণ আদালতে বিচার করা দরকার। অভিযুক্ত মাদকসেবীরা তাদের অপরাধ স্বীকার করেছে - এমন তথ্য জানানোর পরই তাদেরকে সাজা দেই।’

তবে আদালত এক জায়গায় আর বিচারক অন্য জায়গা থেকে মোবাইল ফোনে রায় ঘোষণার ঘটনা নজিরবিহীন বলে জানিয়েছেন কুড়িগ্রামের সরকারি কৌঁসুলী আব্রাহাম লিংকন। এ ক্ষেত্রে বিচারকের আইনি এখতিয়ার ছিল না বলেও মনে করেন তিনি। তাঁর মতে, ‘ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার ক্ষেত্রে বিচারককে সশরীরে হাজির থাকতে হবে। তাঁর উপস্থিতিতে আসামি অভিযোগ স্বীকার করে নিলে বিচারক এ বিষয়ে আইন অনুযায়ী রায় দেবেন। এ ক্ষেত্রে তা তিনি মানেননি।’

তবে বিচারক মামুন বলেন, ঘটনাস্থলে উপস্থিত না থেকে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে রায় ঘোষণাকে আইনবহির্ভূত মনে করেন না তিনি।

রৌমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এ বি এম সাজেদুল ইসলাম জানান, ভ্রাম্যমাণ আদালত রায় অনুযায়ী জরিমানা আদায় করে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়।

এই পুলিশ কর্মকর্তা জানান, মোবাইল ফোনে সব কার্যক্রম পরিচালনা করলেও ছুটি শেষে রবিবার বিচারক  ওই আদেশে সই করেন।

ঢাকাটাইমস/১১অক্টোবর/ডব্লিউবি

সংবাদটি শেয়ার করুন

আদালত বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত