মোহাম্মদপুর থানার ওসিসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা

আদালত প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০১৬, ১৫:৩৯ | প্রকাশিত : ১৬ অক্টোবর ২০১৬, ১৩:২৩

রাজধানীর মোহাম্মদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জামাল উদ্দিন মীরসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে একটি মামলা হয়েছে। দুই লাখ টাকা চাঁদা নেয়ার অভিযোগে রবিবার ঢাকা মহানগর হাকিম খুরশিদ আলমের আদালতে মামলাটি করেন কুতুব উদ্দিন আহমেদ নামে এক আইনজীবী।

বাদীর জবানবন্দি গ্রহণের পর ঢাকা মহানগর হাকিম মো. খুরশীদ আলম পরে আদেশ দেয়ার কথা জানান।

আসামিরা হলেন, মোহাম্মদপুর থানার ওসি মোহাম্মদ জামাল উদ্দিন মীর, উপ-পরিদর্শক মো. রাজীব, সহকারী উপ-পরিদর্শক মো. খোরশেদ, নূর আলী রিয়েল এস্টেটের কর্মকর্তা মো. মামুন হোসেন এবং মো. সোহেল।

মামলায় বাদী অভিযোগ করেছেন, গত ৯ অক্টোবর বিকালে মোহাম্মদপুরের ৩৪৯/এ জাফরাবাদের নিজ বাসায় ঢোকার সময় আসামি মামুন হোসেন ও মো. সোহেল বাদী কুতুব উদ্দিনকে বাসায় ঢুকতে বাধা দেন। নিজেদের মোহাম্মদপুর থানার লোক পরিচয় দিয়ে তারা কুতুব উদ্দিনকে ওসির সঙ্গে কথা না বলে বাসায় ঢুকতে দেওয়া সম্ভব না বলে জানান। বাদী ওসিকে ফোন করে বিষয়টি জানালে ২০ মিনিটের মধ্যে এসআই রাজীব ও খোরশেদ ঘটনাস্থলে আসেন। পরে মোহাম্মদপুর থানার ওসি ও দুই পুলিশ কর্মকর্তা তাকে ডেকে নেন এবং ৪৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন। চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় তাকে বিভিন্নভাবে ভয়ভীতি দেখানো হয়। পরে রাত আটটায় বাদী দুই লাখ টাকা ওসির কাছে জমা দেন। সাদা কাগজেও তার জোরপূর্বক স্বাক্ষর নেওয়া হয়। এ ঘটনা কাউকে বললে তাকে মিথ্যা মামলা দিয়ে রিমান্ডে এনে ক্রসফায়ারের হুমকি দেওয়া হয়।

অভিযোগের ব্যাপারে জানতে চাইলে মোহাম্মদ থানার ওসি জামাল উদ্দিন মীর ঢাকাটাইমসকে জানান, ‘যিনি মামলাটি করেছেন, তিনি একটি বাড়ি দখল করতে গিয়েছিলেন। কিন্তু পুলিশের কারণে সেটি দখল করতে পারেননি। এ ব্যাপারে তার বিরুদ্ধে মামলাও আছে। এছাড়া আরও চারটি মামলায় তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা রয়েছে। এসব বিষয়ে ক্ষিপ্ত হয়ে তিনি পুলিশের বিরুদ্ধে মামলাটি করেছেন।’

(ঢাকাটাইমস/১৬অক্টোবর/আরজে/এএ/এমআর)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আদালত বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত