আমেরিকার দৃষ্টিনন্দন ১০ লাইব্রেরি

ঢাকাটাইমস ডেস্ক
 | প্রকাশিত : ০৯ অক্টোবর ২০১৬, ১৭:৩৬

আমেরিকা জুড়ে সরকারি, বেসরকারি এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের হাজার হাজার লাইব্রেরি রয়েছে। এদের মধ্যে অনেক পুরনো লাইব্রেরি যেমন রয়েছে, রয়েছে আধুনিক ডিজাইনের লাইব্রেরিও।

১. নিউ ইয়র্ক পাবলিক লাইব্রেরি: এটি হচ্ছে 'রোজ রিডিং রুম'। হাজারো লাইব্রেরির ভিড়ে এখনও পাশ্চাত্যের আবহ ধারণ করে আছে।

২. ওয়াশিংটনের কংগ্রেস লাইব্রেরী: যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে পুরনো সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান হিসাবে এটি স্বীকৃত। এই লাইব্রেরিতে আছে প্রায় ১৩০ মিলিয়ন অর্থাৎ ১৩ কোটিরও বেশি বই!

৩. শিকাগোর জো ও রিকা ম্যানসুয়েটো লাইব্রেরি: শিকাগো বিশ্ববিদ্যালয়ের জো ও রিকা ম্যানসুয়েটো পাঠকক্ষ এটি। ডিম্বাকার কাচের গম্বুজের আদলে এটি নির্মাণ করা হয়েছে। লাইব্রেরির এই পাঠকক্ষটি চালু হয় ২০১১ সাল থেকে।

৬. সিটি পাবকিল লাইব্রেরিঃ পৌর স্থাপত্যের অসামান্য নিদর্শন হিসেবে সবার কাছে পরিচিত সিটি পাবলিক লাইব্রেরিরিটি যুক্তরাষ্ট্রের সল্ট লেক সিটিতে অবস্থিত। লাইব্রেরির ডিজাইন করেছেন প্রখ্যাত আর্কিটেক্ট মোসে সাফদি।

৭. বোস্টন পাবলিক লাইব্রেরিঃ ম্যাসাচুসেটসের এই লাইব্রেরিরিটি জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হয় ১৮৫৪ সালে। যা ছিল যুক্তরাষ্ট্রের সেই সময়ের সবচেয়ে বড় পৌর লাইব্রেরি। 

৮. বেইনেকের বিরল বইয়ের লাইব্রেরীটি ইয়েল বিশ্ববিদ্যালয়ে। এতে একটি সুউচ্চ আধুনিক ভবনের মধ্যে বিরল সব বই গাদা করে রাখা হয়েছে।

৯. রেনেসাঁ স্টাইলে ১৮৮৪ সালে তৈরি আইওয়া স্টেট ক্যাপিটাল আইনবিষয়ক লাইব্রেরিটি নিবিড় রক্ষণাবেক্ষণের কারণে এখনও তার আগের সৌন্দর্য অটুট রয়েছে। লাইব্রেরিটির গ্যাসলাইট বা কাচের সিলিং গুলো দেখে মনে হতে পারে মাত্রই কাজ শেষ হয়েছে এগুলোর। 

১০. ক্যানসাস সিটির পাবলিক লাইব্রেরির অন্দরমহলটি দেখতে অসাধারণ। বাইরে থেকে প্রথমে দেখে মনে হতে পারে এর বিশাল বিশাল বই আকৃতির গম্বুজের ভিতর রয়েছে লক্ষ লক্ষ বই। কিন্তু এগুলো প্রত্যেকটা আসলে এক একটা পারকিং লট।

৪. পাঁচস্তর বিশিষ্ট অলিন্দ নিয়ে বাল্টিমোরের জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের জর্জ পিবডি লাইব্রেরি।

৫. এই ক্যাথেড্রাল সদৃশ পাঠকক্ষটি ওয়াশিংটন ইউনিভার্সিটির সুজাল্লো লাইব্রেরির।

(ঢাকাটাইমস/ ০৯ অক্টোবর/এমএস/এআর/ঘ.)

 

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

সাহিত্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত