সন্ত্রাসবাদ মোকাবেলায়ও একসঙ্গে লড়বে বাংলাদেশ-চীন

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৪ অক্টোবর ২০১৬, ২২:৫২ | প্রকাশিত : ১৪ অক্টোবর ২০১৬, ১৭:৩৯

বাণিজ্য, বিনিয়োগ, অবকাঠামোগত উন্নয়নের পাশাপাশি চীনের সঙ্গে বাংলাদেশের দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে আলোচনা হয়েছে সন্ত্রাসবাদ মোকাবেলা নিয়েও। আলোচনা শেষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বা চীনের রাষ্ট্রপ্রধান শি জিনপিং এ নিয়ে বিস্তারিত কিছু বলেননি। তবে জিনপিং এর কথায় এর একটি ইঙ্গিত রয়েছে।

জিনপিং বাংলাদেশের সঙ্গে কী কী বিষয়ে তার দেশ একসঙ্গে কাজ করতে একমত হয়েছে তা বলতে গিয়ে সন্ত্রাসবাদ মোকাবেলায় যৌথ উদ্যোগের কথাও বলেন।

বাংলাদেশে ৯০ দশক থেকেই জঙ্গি সংগঠনগুলোর যাত্রা শুরু হলেও ওই দশকের মাঝামাঝি সময় থেকে বিভিন্ন এলাকায় বোমা হামলা শুরু হয়। ১৯৯৬ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় থাকাকালে যশোরে উদীচীর সম্মেলন, রাজধানীতে রমনা বটমূল, সিপিবির সমাবেশ, নারায়ণগঞ্জে আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে বোমা হামলার ঘটনায় ব্যাপক প্রাণহানি ঘটে।

বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের আমলে ২০০৫ সালে সারাদেশে একযোগে বোমা হামলা করে অস্তিত্বের জানান দেয় দেশীয় জঙ্গি সংগঠন জামাআতুল মুজাহিদ বাংলাদেশ বা জেএমবি।

এরপর সাম্প্রতিককালে পুলিশের ভাষ্যমতে নব্য জেএমবি নামে একটি সংগঠনের আক্রমণের শিকার হয়েছে বাংলাদেশ। গত ১ জুলাইয় গুলশানের অভিজাত রেস্টুরেন্ট হলি আর্টিজান বেকারিতে জঙ্গি হামলা, ৭ জুলাই কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়ায় ঈদুল ফিতরের জামাতে জঙ্গি হামলার পর পুলিশের পাল্টা অভিযানে নিহত হয়েছে সন্দেহভাজন বেশ কজন জঙ্গি।

জঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ মোকাবেলায় বাংলাদেশের ভূমিকার প্রশংসা হচ্ছে আন্তর্জাতিক পর্যায়েও। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শুরু থেকেই বলে আসছেন জঙ্গিবাদ কোনো একক দেশের সমস্যা নয়। বৈশ্বিক সমস্যা মোকাবেলায় আঞ্চলিক ও বৈশ্বিক সহযোগিতার কথা তিনি দীর্ঘদিন ধরেই বলে আসছেন। অতটা প্রচার না হলেও বাংলাদেশের মতই সন্ত্রাসবাদে আক্রান্ত চীনও।

গত আগস্টে কিরঘিজস্তানে চীনা দূতাবাসের ফটকে সন্ত্রাসী হামলা হয়। আত্মঘাতী গাড়ি বোমা হামলায় দূতাবাসের বেশ কয়েকজন কর্মী আহত হন। 

২০১৪ সালের মে মাসে চীনের শিনজিয়াং প্রদেশের রাজধানী উরুমকিতে বোমা হামলায় প্রাণ হারায় ৩১ জন, আহত হয় ৯০ জন। এর আগের মাসের এপ্রিলে একটি স্টেশনে বোমা হামলায় নিহত হয় তিন জন।

ঢাকাটাইমস/১৪অক্টোবর/ডব্লিউবি

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত