ঢামেকে জোড়া লাগানো শিশু রেখে পালালো স্বজনরা

নিজস্ব প্রতিবেদক
ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৫ অক্টোবর ২০১৬, ২৩:০২

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে জোড়া লাগানো একটি শিশুকে ফেলে রেখে পালিয়েছে তার স্বজনরা। শিশুটির দুইটি মাথা, চার হাত ও দুই পা রয়েছে। ছেলে শিশুটি বর্তমানে শিশু সার্জারি বিভাগের ২০৫ নম্বর ওয়ার্ডে আছে।

ঢামেক সূত্রে জানা যায়, গত শুক্রবার রাত ১২টার দিকে ওই নবজাতককে কয়েকজন লোক হাসপাতালে নিয়ে আসেন। শিশুটিকে তারা শিশু সার্জারি বিভাগে ভর্তি করে রাত দুইটার দিকে চলে যান। এরপর তারা আর হাসপাতালে আসেননি। শিশুটিকে ভর্তি করার সময় তারা পরিচয়ও লিখেননি।

বর্তমানে নবজাতকটি ২০৫ নম্বর ওয়ার্ডের ২ নম্বর ইউনিটের ১৪ নম্বর বেডে চিকিৎসাধীন রয়েছে। নবজাতকের কোনো নাম না থাকায় এবং অভিভাবকরা ভর্তির সময় তাদের নাম উল্লেখ না করায়, তার পরিচয় ‘অজ্ঞাত’ হিসাবে ভর্তি রোগীর তালিকায় লেখা রয়েছে।  শিশুটি কবে, কোথায় জন্মগ্রহণ করেছে, সে সম্পর্কেও কিছু জানা যায়নি।

ঢামেক পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া জানান, চিকিৎসার জন্য শুক্রবার রাতে জোড়া লাগানো শিশুকে হাসপাতালে নিয়ে আসে তার স্বজনরা। এরপর ২০৫ নম্বর ওয়ার্ডে বেডে শিশুটিকে ফেলে রেখে তারা চলে যান।  শিশুটি বর্তমানে শিশু সার্জারি বিভাগের ২০৫ নম্বর ওয়ার্ডে আছে।

ঢামেক হাসপাতালের শিশু সার্জারি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. শাহনূর ইসলাম জানান, শিশুটি স্বাভাবিক মানুষের মতোই। তবে ব্যতিক্রম হলো তার ২টি মাথা, ৪টি হাত। এ ছাড়া, তার ২টি পা, একটি পায়ুপথ ও একটি পুরুষাঙ্গ রয়েছে। তাকে এখন চিকিৎসকদের তত্ত্বাবধানে রাখা হয়েছে।

(ঢাকাটাইমস/১৫অক্টোবর/জেডএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজধানী বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত