এবার আলম-শফী

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৩ অক্টোবর ২০১৬, ১৯:২৩ | প্রকাশিত : ১৩ অক্টোবর ২০১৬, ০৮:৫২

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে পদের সংখ্যা বাড়ানোর ঘোষণা এসেছে আগেই। ৭৩ সদস্যের বর্তমান কমিটি বেড়ে কত হতে পারে তা জানতে অপেক্ষা করতে হবে সম্মেলন পর‌্যন্ত। দলে পদের সংখ্যা বাড়ানোর ফলে কেন্দ্রীয় কমিটিতে ডজনখানেক নতুন মুখ আসতে পারে বলছে দলটির নেতারা।

আর এই নতুন মুখ যোগ হওয়ার খবরে আশাবাদী হয়ে উঠেছেন তরুণ নেতারা।

আওয়ামী লীগ সূত্রে জানা গেছে, দলের সহযোগী সংগঠন ছাত্রলীগের সাবেক নেতাদের মধ্যে সাংগঠনিকভাবে দক্ষ, দল ও দলীয় নেতৃত্বের প্রতি নিবেদিতরা এবারের কাউন্সিলের মাধ্যমে মূল্যায়িত হতে পারেন। সাবেক ছাত্রনেতারাই মূলত এ ক্ষেত্রে এগিয়ে। তবে আলোচনার শীর্ষে রয়েছেন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শাহে আলম ও সাবেক ছাত্রনেতা শফী আহমেদ।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন আওয়ামী লীগ নেতা ঢাকাটাইমসকে বলেন, শাহে আলম ও শফী আহমেদ রাজনীতির পরীক্ষিত সৈনিক। এ দুই ছাত্রনেতা স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন। তারা আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে আসছেন বিষয়টি গত কয়েকটি সম্মেলনে আলোচনায় ছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত দলের কেন্দ্রীয় কমিটিতে স্থান হয়নি তাদের। তবে এবার শিকে ছিঁড়তে পারে এ দুজনের।

একানব্বইয়ের নির্বাচনে ছাত্রলীগের তৎকালীন সভাপতি হাবিবুর রহমান হাবিব আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন পেলে তার জায়গায় সভাপতি হন শাহে আলম। সভাপতি হওয়ার আগে এবং সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার পর সব আন্দোলন-সংগ্রামে সফলতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেন তিনি।

আওয়ামী লীগের একজন নেতা ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘স্বৈরাচারবিরোধী ছাত্র আন্দোলনে সামনে থেকে অংশ নেন  শাহে আলম ভাই। এরপর বিরোধী দলে থাকাকালীন আন্দোলন-সংগ্রামে তিনি মাঠে ছিলেন। এরপর কয়েকবার বরিশালের বানিয়াপাড়া আসনের মনোনয়নও চেয়েছিলেন, কিন্তু শেষ পর‌্যন্ত পাননি। আবার গত দুবারের সম্মেলনেও দলে পদপদবি পাননি। তাই এবার হয়তো দলের গুরুত্বপূর্ণ পদে আসতে পারেন।’

নব্বইয়ের দশকে স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলন ও পরে বিএনপিবিরোধী আন্দোলনে আরেক সক্রিয় নেতা ছিলেন শফী আহমেদ। গত দুটি জাতীয় নির্বাচনে দল থেকে মনোনয়ন পাবেন সেই গুঞ্জনও উঠেছিল। কিন্তু শেষ সময়ে আর তিনি তা পাননি।

শফী আহমেদের একজন অনুসারী ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘শফী ভাই বাংলাদেশের রাজনীতিতে একজন সজ্জন ব্যক্তি হিসেবে পরিচিত। এক-এগারোর প্রেক্ষাপটেও তিনি নেত্রীর মুক্তি আন্দোলনে মাঠে ছিলেন। আমরা আওয়ামী লীগের সভাপতির কাছে তার মূল্যায়নের দাবি করছি।’

(ঢাকাটাইমস/১৩অক্টোবর/টিএ/ডব্লিউবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত