না.গঞ্জে পুলিশভ্যানে হামলা-ভাঙচুর, আহত ২

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০৫ আগস্ট ২০১৮, ২০:৩৫ | প্রকাশিত : ০৫ আগস্ট ২০১৮, ১৯:৪৪

নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনের মধ্যেই ড্রাইভিং লাইসেন্স দেখানোকে কেন্দ্র করে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের একটি ভ্যানে হামলা হয়েছে। এতে আহত হয়েছেন পুলিশের দুই সদস্য। ভাঙচুর করা হয়েছে গাড়ি।

রবিবার দুপুরে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মাদানীনগর এলাকায় এ হামলা করে স্কুল-কলেজের পোশাক পরা একদল যুবক।

হামলায় আহতরা হলেন- কনস্টেবল সুনীল ও ফরহাদ।

অন্যদিকে মহাসড়কের সাইনবোর্ড এলাকায় ঢাকা-হোমনা সড়কের বিআরটিসির একটি বাসও ভাঙচুর করে বিক্ষুব্ধ ছাত্ররা।

জানা যায়, রাজধানীর কুর্মিটোলা বাসস্ট্যান্ডে সড়ক দুর্ঘটনায় দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে সিদ্ধিরগঞ্জে রবিবারও কর্মসূচি পালন করছে শিক্ষার্থীরা। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইল মোড়ে সকাল থেকে তারা মহাসড়কে চলাচলরত বিভিন্ন যানবাহনের চালকদের লাইসেন্সসহ যানবাহনের কাগজপত্র চেক করতে থাকে। একই সময় শিক্ষার্থীরা মহাসড়কে চলাচলরত যানবাহনগুলোকে শৃঙ্খলভাবে চলাচল করতে বাধ্য করে।

এ সময় ঢাকা থেকে আসা ডেমরা থানার পুলিশ পিকআপভ্যান শিমরাইল মোড় হয়ে ডেমরা থানায় যাওয়ার সময় মাদানীনগর এলাকায় এলে একদল যুবক পুলিশের কাগজ পরীক্ষা করে। তাদেরকে কাগজ-পত্র সরবরাহ করলেও হঠাৎ করে শিক্ষার্থীরা ওই ভ্যানে হামলা চালিয়ে গ্লাস ভাঙচুর করেছে বলে জানিয়েছেন পিকাপের ড্রাইভার কনস্টেবল সুনীল।

পরে তারা কনস্টেবল সুনীল এবং ফরহাদকে লাঠি দিয়ে আঘাত করে।

খবর পেয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলেও হামলাকারীদের কাউকে ঘটনাস্থলে পায়নি বলে জানিয়েছেন সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি আব্দুস সাত্তার টিটু।

ওসি বলেন, স্কুল ছাত্রদের পোশাক পরে বহিরাগতরা এ হামলা চালিয়েছে।

এদিকে দুপুর সাড়ে ১২টায় একই মহাসড়কের সাইনবোর্ড এলাকায় ঢাকা-হোমনা সড়কের বিআরটিসি একটি বাসে (নং-ঢাকা মেট্টো ব-১১-৫১৭৯) ভাঙচুর করে বিক্ষুব্ধ ছাত্ররা।

দুপুরে ঢাকা-কুমিল্লাগামী একটি বাস সানারপাড় এলাকায় পৌঁছালে ছাত্ররা কাগজ দেখতে চায় চালকের কাছে। কিন্তু চালক কাগজ না দেখিয়ে গাড়ি চালালে শিক্ষার্থীরা ওই পরিবহনে ঢিল ছুঁড়ে পরিবহনটির কয়েকটি গ্লাস ভেঙে ফেলে। শিক্ষার্থীরা দুপুর পৌনে ১টায় চিটাগাংরোড মোড়ে অবস্থান নিলে পুলিশ তাদেরকে সরে যেতে বলে। এতে শিক্ষার্থীরা পুলিশের সাথে বিতর্কে জড়িয়ে পড়লে পুলিশ সরে যায়। শিক্ষার্থীরা পরবর্তী সময়ে আবারও মহাসড়কে যানবাহনগুলোর কাগজপত্র পরীক্ষা করতে থাকে। একই সময় তারা মহাসড়কে চলাচলরত পরিবহনগুলোতে শৃঙ্খলভাবে চলতে বাধ্য করে।

(ঢাকাটাইমস/০৫আগস্ট/প্রতিনিধি/ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :