নির্বাচনে ফের সেনা মোতায়েনের দাবি ফখরুলের

ঠাকুরগাঁও প্রতিবেদক, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৩:৫১ | প্রকাশিত : ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৩:৪০

ভোট চুরি করতে না পারলে আওয়ামী লীগ কোনোদিন জনরায়ে নির্বাচিত হতে পারবে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব ও একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঠাকুরগাঁও-১ ও বগুড়া-৬ আসনের প্রার্থী মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। 

তিনি আজ নিজ জেলা ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার সালন্দর ইউনিয়নের বরুনাগাঁও এলাকায় নির্বাচনী পথসভায় এ কথা বলেন। 

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমরা শুরু থেকে বলে আসছি নির্বাচনে সেনাবাহিনী নিয়োগ করতে  হবে। তাদের ম্যাজিস্ট্রেসি ক্ষমতা দিতে হবে। যাতে আওয়ামী লীগ কোনো ভোট কেন্দ্র দখল করতে না পারে। কারণ তারা জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে নির্বাচনে বিজয়ী হতে ভোট চুরি করবে। আর ভোট চুরি করতে না পারলে আওয়ামী লীগ কোনোদিন জনরায়ে নির্বাচিত হতে পারবে না।’

এই সরকারের পরিবর্তন না হলে দেশে গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা থাকবে না বলে মনে করেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল। বলেন, এই সরকার আবার ক্ষমতায় এলে দেশে কোনো জবাবদিহিতা থাকবে না। একদলীয় শাসন ব্যবস্থা, স্বৈরাচারী শাসন ব্যবস্থা পোক্ত হয়ে চলতে থাকবে। এ অবস্থা থেকে উত্তরণে ধানের শীষে ভোট দিতে হবে। 
তিনি বলেন, এ অবস্থা থেকে উত্তরণে ড. কামাল হোসেনকে নিয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠন করা হয়েছে। এই জোটের একটিই উদ্দেশ্যে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করা। সে কারণে আজকে সবগুলো দল এক হয়েছে। 

দেশের অগণীত নেতা-কর্মী যারা কারাগারে আটক রয়েছে তাদের মুক্ত করতে, মামলা হামলা থেকে সাধারণ মানুষকে মুক্ত করতে আগামী ৩০ডিসেম্বর ধানের শীষে ভোট দিয়ে গণতন্ত্রের বিজয়ের ছিনিয়ে আনার আহ্বান জানান তিনি। 
এসময় একজন শিক্ষিত যুবক যতদিন চাকরি পাবে না, ততদিন পর্যন্ত তাদের বেকার ভাতা দেওয়ার  ঘোষণা দেন। সেই সাথে অন্যান্য যুবকদেরও বেকার ভাতা দেওয়ার কথা জানান তিনি। 

আজ তিনি ওই ইউনিয়নের চেরাডাঙ্গী ও বটতলী, দুপুরে রাজাগাঁও ইউনিয়নের বড়দেশ্বরী, চুয়ামনি ও হোসেন চৌধুরী পাড়ায় গণসংযোগ করবেন। বিকালে রহিমানপুর ও জামালপুর ইউনিয়নে গণসংযোগ ও জনসভায় ভাষণ দেবেন বলে জানা গেছে। 
ঢাকা টাইমস/১৩ডিসেম্বর/প্রতিবেদক/ওআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :