সিলেটেও শূন্য গ্যালারিতে বিপিএল!

হিমু আক্তার
 | প্রকাশিত : ১৫ জানুয়ারি ২০১৯, ১৫:১১

গত ৫ জানুয়ারি শের-ই বাংলায় অনেকটা ফাঁকা গ্যালারিকে স্বাক্ষী রেখে শুরু হয়েছিল বিপিএলের ষষ্ঠ আসর। ধারণা করা হয়েছিল, কর্মব্যস্ত ঢাকা থেকে চায়ের শহর সিলেটে ভক্ত সমাগমে জমজমাট হয়ে উঠবে টুর্নামেন্টটি। কিন্তু না, ঘুরে-ফিরে মিরপুরের চিত্রই ফুটে উঠলো সিলেট আন্তজার্তিক স্টেডিয়ামে।

সিলেটের আগে ঢাকায় প্রথম পর্বের মোট ১৪টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে। তার মধ্যে স্টেডিয়াম দর্শকে পরিপূর্ণ ছিল শুধু মাত্র ১১ জানুয়ারি ঢাকা ডায়নামাইটস বনাম রংপুর রাইডার্সের ম্যাচটি। এছাড়া ঢাকা ডায়নামাইটসের ম্যাচে হাতে গোনা কিছু দর্শক ছিল। বাকি ম্যাচগুলোতে দর্শক হাহাকার ছিল শের-ই বাংলায়।

অবশ্য দর্শক মাঠে না আসার যথেষ্ট কারণও ছিল। ঢাকায় ১৪টি ম্যাচের মধ্যে দুই-তিনটি ছাড়া সবগুলো ম্যাচই ছিল একপেশে। তাছাড়া চোখে পড়া মতো ছিল না একটি বড় ইনিংসও। সেই সঙ্গে, ডিআরএস নাটক, বাজে সম্প্রচার আর ভুলেভরা উপস্থাপনায় টুর্নামেন্টটি দেখার আগ্রহ হারিয়েছে ভক্তসমাজ। সবকিছুর পরেও সিলেটে দর্শক আসা করেছিলেন আয়োজকরা। ভুল উপস্থাপনা করা টিনো বেস্টকে বাদ দিয়ে সিলেটে উড়িয়ে আনা হয় ডেনি মরিসনকে।

কিন্তু দর্শক কই? সিলেটেও ফাঁকা গ্যালারি দিয়ে যাত্রা করেছে এবারের বিপিএল। দিনের প্রথম ম্যাচে খুলনা টাইটানসের বিপক্ষে মাঠে নেমেছে রাজশাহী কিংস। পুরো মাঠ ছিল দর্শকশূন্য। গ্রান্ড স্টান্ডে মিলেনি হাতেগোনা দশজন মানুষও। গ্রীণ গ্যালারিতে কিছু সংখ্যাক দেখা গেলেও বাকিটা পুরো ফাঁকা। অবশ্য দর্শক টানবে কি করে? রাজশাহী-খুলনার ম্যাড়ম্যাড়ে ম্যাচ দিয়ে সিলেটে শুরু হয়েছে বিপিএল। 

দিনের অপর ম্যাচে স্বাগতিক সিলেট সিক্সার্সের মুখোমুখি হবে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। খুলনা-রাজশাহীর ম্যাচে দর্শক না থাকলেও নিজেদের স্বাগতিক দল সির্ক্সাসের সমর্থন দিতে মাঠে হাজির হতে পারেন স্থানীয়রা। তবে অন্তত প্রথম ম্যাচটি দেখেই বুঝা যাচ্ছে স্বাগতিক দল ছাড়া বাকি ম্যাচগুলোতে দর্শক টানতে ব্যর্থ হতে পারে সিলেট আন্তজার্তিক স্টেডিয়ামও। 

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :