আনুষ্ঠানিকভাবে ভাঙল শ্রাবন্তীর দ্বিতীয় ঘর

বিনোদন ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ১৬ জানুয়ারি ২০১৯, ১৬:১৫ | প্রকাশিত : ১৬ জানুয়ারি ২০১৯, ১১:১৮
দ্বিতীয় সাবেক স্বামী কৃষেণ ব্রজের সঙ্গে অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়

এক বছরেরও বেশি সময় আলাদা থাকার পর অবশেষে পাকাপাকি দেয়াল তৈরি হল অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায় ও তার দ্বিতীয় স্বামী কৃষেণ ব্রজের সম্পর্কের মাঝে। ২০১৭ সালের জুলাইয়ে বিয়ে করেছিলেন তারা। মাত্র তিন মাস সংসার করার পর অক্টোবরে মৌখিকভাবে বিবাহ বিচ্ছেদের ঘোষণা দেন শ্রাবন্তী ও কৃষেণ। এরপর থেকেই আলাদা থাকছিলেন দুই তারকা। এবার সেই বিচ্ছেদে পড়ল আদালতের সিলমোহর।

মঙ্গলবার আলিপুর আদালতে আনুষ্ঠানিক বিবাহ বিচ্ছেদ হয় শ্রাবন্তী ও মুম্বাইয়ের মডেল কৃষেণ ব্রজের। ২০১৭ সালে পারস্পারিক বোঝাপড়ার ভিত্তিতে বিবাহ বিচ্ছেদের এই মামলা হয়েছিল বলে জানান শ্রাবন্তীর আইনজীবী। মঙ্গলবার সেই কাগজপত্রে সিলমহর দেন আলিপুর আদালতের জেলা বিচারক রবীন্দ্রনাথ সামন্ত। আপাতত কাজ এবং ছেলেকে বড় করাই মূল লক্ষ্য বলে জানান শ্রাবন্তী। কারও বিরুদ্ধে তার কোনো অভিযোগ নেই।

নায়িকা প্রথম ঘর বেঁধেছিলেন পরিচালক রাজীব বিশ্বাসের সঙ্গে। ২০০৩ সালে বিয়ে হয়েছিল তাদের। ভালোই চলছিল তাদের বৈবাহিক জীবন। শ্রাবন্তী-রাজের সংসারে জন্ম হয়েছিল একমাত্র ছেলে ঝিনুকের। কিন্তু সুখের সে সংসারে দমকা হাওয়া আসে ২০১১ সালে। একাধিক নারীর সঙ্গে অবৈধ সম্পর্কের অভিযোগ এনে রাজের ঘর ছাড়েন শ্রাবন্তী। একমাত্র সন্তান ঝিনুককে নিয়ে আলাদা থাকতে শুরু করেন তিনি।

এরপর দীর্ঘ চার বছরেরও বেশি সময় একা ছিলেন নায়িকা। এই সময়ের মধ্যে নিজেকে তিনি তৈরি করেছিলেন কলকাতার সবচেয়ে দামি ও জনপ্রিয় অভিনেত্রী হিসেবে। কিন্তু একলা জীবনে সবকিছু তার বিষাদময় মনে হচ্ছিল।

শ্রাবন্তীর সেই একাকীত্ব ঘোচে ২০১৫ সালে। ওই বছর একটি বিজ্ঞাপনী সংস্থায় একসঙ্গে কাজ করতে গিয়ে মডেল কৃষেণ ব্রজের সঙ্গে তার পরিচয় হয়। সেই পরিচয় থেকে বন্ধুত্ব, তারপর প্রেম এবং ২০১৭ সালের জুলাইয়ে শুভ পরিনয়। কিন্তু অবিশ্বাসের ঝড় এসে ভেঙে দিল শ্রাবন্তীর দ্বিতীয় সংসারও।

ঢাকা টাইমস/১৬ জানুয়ারি/এএইচ

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিনোদন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত