নিজেকে গৃহবন্দি করে ফেলেছেন পান্ডিয়া!

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৬ জানুয়ারি ২০১৯, ১৫:১৫

‘কফি উইথ করণ’ টিভি শোতে নারীসঙ্গ ও যৌনতা নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করে সমালোচনা তো কুড়িয়েছেনই সঙ্গে জুটেছে নিষেধাজ্ঞা। নিষিদ্ধ হয়ে অস্ট্রেলিয়া থেকে দেশে ফিরেছেন হার্ডিক পান্ডিয়া। অজিদের বিপক্ষে চলমান ওয়ানডে সিরিজে তিনি দর্শক। সবমিলিয়ে সময়টা বেশ খারাপ কাটছে এই পেস অলরাউন্ডারের। তার বাবা হিমাংশুর জানিয়েছেন, পান্ডিয়া এতটাই মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছেন যে, অস্ট্রেলিয়া থেকে ফেরার পর বাড়ির বাইরে যাওয়াই বন্ধ করে দিয়েছেন।

ওই টিভি শো’তে পান্ডিয়ার সঙ্গে ছিলেন ভারতীয় ওপেনার লোকেশ রাহুলও। কিন্তু রাহুলের চেয়ে পান্ডিয়ার ওপর ধকলটা অনেক বেশি যাচ্ছে। এমনকি তার ব্যক্তিগত জীবন এখন হুমকির মুখে। এক মন্তব্যে জীবনের সব আনন্দ-ফূর্তি যেন মাটি হতে বসেছে। অস্ট্রেলিয়া থেকে ফেরা পান্ডিয়ার বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে তার বাবা হিমাংশু বলেন, ‘অস্ট্রেলিয়া থেকে দেশে আসার পর সে বাড়ির বাইরে যায়নি। কারো ফোন কলও ধরেনি। সে কেবল বিশ্রাম নিচ্ছে।’ 

অন্য সময় মকর-সংক্রান্তিতে বন্ধুদের নিয়ে ঘুড়ি উড়াতেন পান্ডিয়া। কিন্তু এবার উৎসবটি পালন করেননি। হিমাংশু বলেন, মকর-সংক্রান্তি নিয়ে ছেলের মাঝে কোনো আগ্রহ দেখতে পাননি তিনি, ‘গুজরাটের একটি উৎসব এটি। কিন্তু হার্ডিক কোনো ঘুড়ি উড়ায়নি। সে ঘুড়ি উড়ানো খুব ভালোবাসে। গত কয়েক বছর ধরে সুযোগের অভাবে উৎসবটা পালন করতে পারেনি। এবার সুযোগ ছিল। কিন্তু উৎসব পালন করার মত মুড ছিল না তার।’

আপত্তিকর মন্তব্যের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সবার কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেন পেস অলরাউন্ডার পান্ডিয়া। কিন্তু বিসিসিআই তাকে ও রাহুলকে অনির্দিষ্টকালের জন্য ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ করে। তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ না হওয়া পর্যন্ত তাদের নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকবে।

(ঢাকাটাইমস/১৬ জানুয়ারি/ এবিএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত