‘বার্সা বাদ পড়লে অবিচার হবে’

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৮ জানুয়ারি ২০১৯, ১৭:০৩

গত চার মৌসুমেই কোপা দেল রে’র শিরোপা জিতেছে বার্সেলোনা। বৃহস্পতিবার লেভান্তেকে দ্বিতীয় লেগে ৩-০ গোলে হারিয়ে কাতালান জায়ান্টরা আবারও ওঠে গেছে শেষ আটে। কিন্তু কোয়ার্টার ফাইনালের টিকিট কাটা দলটি স্বস্তিতে নেই। 

লেভান্তের মাঠে শেষ ষোলোর প্রথম লেগে ২-১ ব্যবধানে হেরেছিল বার্সা। ওই ম্যাচে ডিফেন্ডার হুয়ান ব্রানদারিস চুমির খেলা নিয়েই মূলত বিপত্তিতে পড়েছে কাতালান ক্লাবটি। স্প্যানিশ লিগের দ্বিতীয় বিভাগ সেগুন্দা ডিভিশনে বার্সা ‘বি’ দলের হয়ে চলতি মৌসুমে পাঁচটি হলুদ কার্ড দেখায় এক ম্যাচ নিষিদ্ধ হন চুমি। কিন্তু নিষেধাজ্ঞা না কাটিয়ে মূল দলের হয়ে খেলতে নেমেছেন তিনি। তার এই খেলা নিয়েই স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশনের (আরএফইএফ) কাছে নালিশ জানিয়েছে লেভান্তে। 

কেননা, আরএফইএফের আর্টিকেল ৫৬.৩ বলছে, কোনো খেলোয়াড় নিষেধাজ্ঞা না কাটিয়ে নিজ দল কিংবা অন্য কোনো দলের হয়ে খেলতে পারবেন না। যে দল সাসপেনশনে থাকা খেলোয়াড় মাঠে নামাবে তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে। শাস্তি হিসেবে যে ম্যাচে নিষিদ্ধ খেলোয়াড় খেলেন, সাধারণত সে ম্যাচটিতে তার দল ‘পরাজিত’ বলে গণ্য করা হয়।

২০১৬ সালে কোপা দেল রে’তে কাদিজের বিপক্ষে সাসপেনশনে থাকা ডেনিস চেরিসেভকে মাঠে নামিয়ে কপাল পুড়েছিল রিয়াল মাদ্রিদের। তাহলে কি বার্সাও বাদ পড়তে যাচ্ছে? তবে তাদের ব্যাপারটা একটু ভিন্ন। লিগের নিষেধাজ্ঞা সাধারণত কোপা দেল রে’তে কার্যকর হয় না। বার্সা কোচ ভালভার্দে বিষয়টি জানতেন। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, ‘আমরা বিশ্বাস করি, আমরা সঠিক কাজটিই করেছি। আমি জানতাম, চুমির নিষেধাজ্ঞা আছে। সেজন্যই রোববার লা লিগায় এইবারের বিপক্ষে তাকে দলে নেইনি।’

২০১৬-১৭ মৌসুমে রিয়ালের যুবদলের হয়ে আলভারো তাজেরো নিষিদ্ধ হওয়া সত্তে¡ও কালচারাল লিওনেসার বিপক্ষে তাকে মাঠে নামান জিনেদিন জিদান। কাজেই বার্সা বাদ পড়লে সেটা অন্যায় হবে বলেই মনে করছেন ইভান রাকিতিচ, ‘যদি আমরা কোয়ার্টার ফাইনালে না খেলতে পারি তবে সেটা হবে অবিচার।’

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :