সুনামগঞ্জে মুক্তিযুদ্ধের ভ্রাম্যমাণ বইগাড়ি

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৮ জানুয়ারি ২০১৯, ২০:৫৩

‘ইতিহাস ধরব তুলে বই যাবে তৃণমূলে’ স্লোগানে দেশে প্রথমবারের মতো মুক্তিযুদ্ধের ভ্রাম্যমাণ বইমেলা শুরু করেছে শ্রাবণ প্রকাশনী। এখন দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের জনপদ সুনামগঞ্জে মুক্তিযুদ্ধের নির্বাচিত ৪শ বই নিয়ে মুক্তিযুদ্ধের ভ্রাম্যমাণ বইমেলার বইগাড়ি।

শুক্রবার সকালে মুক্তিযুদ্ধের বই নিয়ে জেলা শহরের পৌর মার্কেটে অবস্থান করছে গাড়িটি। মুক্তিযুদ্ধের বই কিনতে বিভিন্ন প্রজন্মের পাঠক ক্রেতাদের বইগাড়ির পাশে ভিড় করতে দেখা গেছে। তিন দিনের এই বইমেলা শেষ হবে আগামী ২১ জানুয়ারি।

মুক্তিযুদ্ধের ভ্রাম্যমাণ বইমেলার খবর শুনে স্থানীয় লেখক, সংস্কৃতিকর্মীরাও জড়ো হয়েছেন পছন্দের বই সংগ্রহ করার জন্য।

বিকালে কবি ও গবেষক ইককাল কাগজী, লেখক এনামুল কবির, সংস্কৃতিকর্মী অনুপ নারায়ণ তালুকদার, গল্পকার সুবল বিশ্বাস, কবি ও সাংবাদিক শামস শামীম, কবি মানবেন্দ্র করসহ স্থানীয় অনেক লেখককেই বইগাড়ি দেখছেন। সংশ্লিষ্টরাও মুক্তিযুদ্ধের বইয়ের ভালো বিক্রি হচ্ছে বলে জানিয়েছেন।

জানাযায়, মুক্তিযুদ্ধের নির্বাচিত বই নিয়ে ‘ইতিহাস ধরবো তুলে বই যাবে তৃণমূলে’ প্রতিপাদ্যে দেশে প্রথমবারের মতো মুক্তিযুদ্ধের ভ্রাম্যমাণ বইমেলা শুরু করেছে শ্রাবণ প্রকাশনী। বইমেলায় শ্রাবণ প্রকাশনীসহ দেশের বিভিন্ন প্রকাশনীর মুক্তিযুদ্ধের নির্বাচিত চারশটি বই দিয়ে সাজানো হয়েছে গাড়িটি। একসঙ্গে মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক বই পাওয়ার সুযোগ থাকায় মুক্তিযুদ্ধ সাহিত্যের প্রতি অনুরাগীদের প্রকাশনীর ক্যাটালগ বই দেখে বই পছন্দ করে কেনার জন্য তালিকা করতে দেখা গেছে।

বেলাল আলী ও দোলন দেবনাথসহ অনেক শিক্ষার্থীই জানান, মুক্তিযুদ্ধের এতগুলো বই একসঙ্গে জড়ো করে সারাদেশে ভ্রাম্যমাণ বইমেলাটি প্রশংসার দাবি রাখে। আমরাও একসঙ্গে পছন্দনীয় বই সংগ্রহের সুযোগ পেয়েছি। এটি একটি ভালো উদ্যোগ। নতুন প্রজন্ম এ থেকে মুক্তিযুদ্ধের প্রকৃত ইতিহাস সন্ধানের সুযোগ পাবে।

শ্রাবণ প্রকাশনীর স্বত্ত্বাধিকারী ও মেলার আয়োজক রবীন আহসান বলেন, যে সাড়া পেয়েছি- আশা করি, মুক্তিযুদ্ধের বইয়ের শতভাগ বিক্রি বাড়াতে পারব। নতুন প্রজন্ম মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানতে চায়। আমরা যেখানেই যাচ্ছি- ভালো সাড়া পাচ্ছি। মুক্তিযুদ্ধের বইয়ের প্রতি সাধারণ পাঠকের আগ্রহ বাড়ছে। আমরা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এই ক্যাম্পিং করে মেলা নিয়ে নেমেছি।

(ঢাকাটাইমস/১৮জানুয়ারি/এলএ)

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :