কঙ্গনা-করণি সেনাদের পাল্টাপাল্টি হুমকি

বিনোদন ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ২০ জানুয়ারি ২০১৯, ১৯:২৭

মুক্তির খুব কাছে কঙ্গনা রানাওয়াত অভিনীত ‘মণিকর্ণিকা: দ্য কুইন অব ঝাঁসি’। আগামী ২৫ জানুয়ারি পর্দায় ওঠার কথা এই ছবি। কিন্তু তার আগেই শুরু হয়েছে হুমকি ধামকি। এক পাশে ভারতের করণি সেনারা, অন্য পাশে ছবির নায়িকা কঙ্গনা। কিছুদিন আগে মুক্তি পায় ‘মণিকর্ণিকা’র অফিসিয়াল ট্রেলার। যেটা দেখে ক্ষেপেছে করণি সেনারা। তারা হুমকি দিয়েছেন, এই ছবি মুক্তি পেলে কঙ্গনার ওপর হামলা করা হবে। ছবির পোস্টার পুড়িয়ে দেওয়া হবে।

‘মণিকর্ণিকা’য় রানি লক্ষ্মীবাঈয়ের চরিত্রে অভিনয় করেছেন কঙ্গনা। করণি সেনাদের দাবি, ছবিতে রানি লক্ষ্মীবাঈয়ের ভাবমূর্তি নষ্ট করা হয়েছে এবং তাকে একজন ব্রিটিশ নাগরিকের প্রেমিকা হিসেবে দেখানো হয়েছে। এই বিষয়টা ছবির শুটিং শুরুর দিন থেকেই পর্যবেক্ষণ করছিলেন করণি সেনারা। এ জন্য তারা আগেই হুঁশিয়ারি দিয়ে রেখেছিলেন, রানি লক্ষ্মীবাঈয়ের চরিত্র যেন খাটো করা না হয়। যার কারণে ছবির ট্রেলার দেখেই তেতে উঠেছেন তারা।

কিন্তু হুমকি ধামকিকে ভয় পাওয়ার পাত্রী নন কঙ্গনা। তিনিও পাল্টা হুমকি দিয়েছেন করণি সেনাদের। বলেছেন, ‘আমি বা ছবির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কাউকে যদি হেনস্তা এবং অপদস্থ করা হয়, তাহলে ওদেরকে আমি দেখে নেব। তারা বোধহয় ভুলে গেছে, আমিও জাতে রাজপুত।’ চার জন ঐতিহাসিক ছবিটিকে শংসাপত্র দিয়েছেন, সেন্সর সার্টিফিকেটও মিলেছে বলে জানান কঙ্গনা। নায়িকা হুঁশিয়ারি দেন, ‘ওরা না থামলে ফল ভালো হবে না।’

‘মণিকর্ণিকা: দ্য কুইন অব ঝাঁসি’ পরিচালনা করেছেন রাধাকৃষ্ণ জাগরলামুদি। যেখানে রানি লক্ষ্মীবাঈ কঙ্গনার স্বামী রাজা গঙ্গাধর রাওয়ের চরিত্রে অভিনয় করেছেন কলকাতার সুপারস্টার যিশু সেনগুপ্ত। এছাড়া ঝলকারি বাঈয়ের চরিত্রে আছেন অঙ্কিতা লোখণ্ডে ও তাঁতিয়া টোপের চরিত্রে অতুল কুলকার্ণি। তবে ছবি মুক্তির আগে করণি সেনাদের হুমকি ধামকিতে একটু চিন্তায়ই পড়ে গেছেন এর পরিচালক-প্রযোজকসহ অভিনেতা-অভিনেত্রীরা।

এর আগে গত বছর রণবীর সিং, দীপিকা পাডুকোন এবং শহিদ কাপুর অভিনীত ‘পদ্মাবত’ ছবি নিয়েও নানা ঝামেলা করেছিল করণি ও রাজপুত সেনারা। সঞ্জয় লীলা বানসালির এই ছবিতে রানি পদ্মাবতর চরিত্রকে বিকৃত করা হয়েছে বলে অভিযোগ ছিল তাদের। এই চরিত্রে অভিনয়ের জন্য দীপিকার মাথা কেটে নেওয়ার হুমকি দিয়েছিলেন তারা। হুমকি দেওয়া হয়েছিল পরিচালক বানসালিকেও। এমনকি তার পরিবারের মেয়েদের বেশ্যা বলে সম্মোধন করা হয়েছিল।

কিন্তু এত ঝামেলা সত্ত্বেও ভারতীয় হাইকোর্টের নির্দেশে বানসালির ‘পদ্মাবত’ ঠিকই মুক্তি পেয়েছিল। ভালো ব্যবসাও করেছিল। তবে নাম পরিবর্তন করতে হয়েছিল ছবির। আগের নাম ছিল ‘পদ্মাবতী’। অন্যদিকে করণি ও রাজপুত সেনাদের হুমকির বিপক্ষে দেশটির আদালত বলেছিল, এই ছবি দেখতে যারা সিনেমা হলে যাবেন তাদের নিরাপত্তা দেবে পুলিশ। এবার কঙ্গনার ‘মর্ণিকর্ণিকা: দ্য কুইন অব ঝাঁর্সি’র মুক্তির ব্যাপারে হুমকি ধামকির জল কতদূর গড়ায় সেটা দেখার অপেক্ষা।

ঢাকা টাইমস/২০ জানুয়ারি/এএইচ 

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিনোদন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :