আওয়ামী লীগ-যুবলীগ সংঘর্ষ, শিশুসহ গুলিবিদ্ধ ১৭

নোয়াখালী প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২২ জানুয়ারি ২০১৯, ২১:৪২

নোয়াখালীর সদর উপজেলার দাদপুর ইউনিয়নে আধিপত্য বিস্তারের জেরে স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও যুবলীগের সংঘর্ষ হয়েছে। ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া আর গোলাগুলিতে এক শিশুসহ ১৭ জন গুলিবিদ্ধ হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেলে খলিফারহাট বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধরা হচ্ছেন রামহরিতালুক গ্রামের সবুজ, শান্ত, বারাইপুর গ্রামের সোলায়মান, সুমন, সুজন, আলমগীর, মিরাজ, জসিম উদ্দিন, ওহিদুল ইসলাম, মাসুদ, মঞ্জু, জিয়া উদ্দিন ও মনির আহম্মদ। বাকি চারজনের নাম-পরিচয় জানাতে পারেনি পুলিশ। গুলিবিদ্ধ ১০ জনকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্র জানায়, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন ধরে স্থানীয় যুবলীগ নেতা ও ৮ নম্বর ইউপি সদস্য জহির উদ্দিনের সঙ্গে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক মিজানুর রহমান শিপনের বিরোধ চলে আসছিল। আগেও দুজনের অনুসারীদের মধ্যে একাধিকবার সংঘর্ষ ও গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে।

এ বিষয়ে জহির ঢাকা টাইমসের কাছে অভিযোগ করেন, গত বছরের ১১ ডিসেম্বর দুপুরে শিপনের নেতৃত্বে তার উপর হামলা চালানো হয়। এ সময় সন্ত্রাসীরা তার মাথায় গুলি করে। তাকে কুপিয়ে জখম করে। পরে এই ঘটনায় তিনি বাদী হয়ে নয় জনকে আসামি করে একটি মামলা করেন। মামলায় সাত জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। গতকাল দুপুরে আসামিরা আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে আদালত তাদের মধ্যে চার জনকে জামিন দেয়। বাকিদের জামিন নামঞ্জুর হয়। এরপরই জামিনপ্রাপ্তরাসহ শিপনের নেতৃত্বে আরো অনেকে আবার তার বাড়িতে হামলা চালায়। তারা গুলিও করে। এতে তার ১০ জন অনুসারী গুলিবিদ্ধ হয়েছে। পরে স্থানীয়দের ধাওয়ার কারণে হামলাকারীরা পালিয়ে যায় বলে দাবি করেন জহির।

তবে তার অভিযোগ অস্বীকার করে শিপন ঢাকা টাইমসকে জানান, বিকেলে তিনি তার জামিন প্রাপ্ত সমর্থকসহ ১৪ জনকে নিয়ে এলাকায় যাচ্ছিলেন। তারা জহির মেম্বারের বাড়ির সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় তাদের উপর গুলি চালায় মেম্বারের লোকজন। এতে তিনিসহ সাত জন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। যার মধ্যে আশংকাজনক অবস্থায় থাকা মিরাজ ও আলমগীরকে ঢাকা নেওয়া হয়েছে।   

এই সংঘর্ষের বিষয়ে সুধারাম মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন ঢাকা টাইমসকে জানান, দুই পক্ষের সংঘর্ষে ছররা গুলিতে কয়েকজন গুলিবিদ্ধ হয়েছে। এ ঘটনায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :