পুলিশ পদক দায়িত্ব বাড়িয়েছে: সারোয়ার

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৯:০৮ | প্রকাশিত : ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৮:৪০

অবৈধ মাদক ও অস্ত্র উদ্ধারে বিশেষ ভূমিকা রাখায় পুলিশ পদক পাওয়া র‌্যাব-১ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল সারোয়ার-বিন কাশেম ভবিষ্যতে আরো ভালো কাজ করার অঙ্গীকার করেছেন। বলেছেন, এই পদক তার জীবনের শ্রেষ্ঠ অর্জন।
সোমবার পুলিশ সপ্তাহের প্রথম দিন রাজারবাগ পুলিশ লাইনসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পুলিশের এলিট ফোর্সের এই কর্মকর্তাকে পদক পরিয়ে দেন।

সেবা, সাহসিকতা ও বীরত্বপূর্ণ ভূমিকার জন্য পুলিশ সপ্তাহে পদক দেওয়া হয় যা বিপিএম এবং পিপিএম নামে পরিচিত। প্রথমটি বাংলাদেশ পুলিশ পদক এবং পরেরটি রাষ্ট্রপতি পুলিশ পদক। সারোয়ার পেয়েছেন বিপিএম সেবা।

এবার এই দুই পদক পেয়েছেন রেকর্ডসংখ্যক ৩৪৯ জন। গুরুত্বপূর্ণ মামলার রহস্য উদঘাটন, অপরাধ নিয়ন্ত্রণ, দক্ষতা, কর্তব্যনিষ্ঠা, সততা ও শৃঙ্খলামূলক আচরণ ছাড়াও ‘সুষ্ঠুভাবে’ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন করায় বেড়েছে পদকের সংখ্যা।

প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে পদক পেয়ে ভীষণ উচ্ছ্বসিত র‌্যাবের এই কর্মকর্তা। ঢাকাটাইমসকে তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে পুরস্কার পাওয়া এটা সব চেয়ে বড় এবং আনন্দের। যেটা আমার কাছে সবচেয়ে বড় অর্জন মনে হয়েছে।’

‘প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে পদক পাওয়ার পর মনে হয়েছে আমরা দায়িত্ব আরো বেড়ে গিয়েছে। আর সেটা প্রমাণ করে দেখাতে হবে। বিশেষ করে মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ নির্মূলে আরো অগ্রণী ভূমিকা রাখতে হবে।’

সারোয়ার সম্প্রতি প্রশংসিত হন মানবিক এক উদ্যোগে। গত ৩ জানুয়ারি গাজীপুরের ভাওরাইদে গৃহবধূ আফরোজাকে গলাটিপে হত্যার ঘটনা তদন্ত করতে গিয়ে তার স্বামী শাহজাহান মিয়ার সম্পৃক্ততার তথ্য পায় র‌্যাব। তাকে আটকও করা হয়।

পরে জানা যায় এই দম্পতির পাঁচ বছরের একটি মেয়ে আছে। আর মায়ের মৃত্যু ও বাবার গ্রেপ্তারের পর সে অসহায় অবস্থায় পড়েছে। বিষয়টি জানতে পেরে সাথীর পড়ালেখার দায়িত্ব নেন র‌্যাবের এই কর্মকর্তা। তার মামা আনোয়ার হোসেনের জন্য চাকরির ব্যবস্থা করে দেন। সেই সঙ্গে মেয়েটির জন্য নগদ সহায়তার ব্যবস্থাও করেন। আর ১৮ বছর পর্যন্ত সব ধরনের সহযোগিতা করার ঘোষণাও দেন।

গত বছরের ২৯ জুলাই বিমানবন্দর সড়কে দুর্ঘটনায় শহীদ রমিজ উদ্দিন কলেজের দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর পর সারোয়ারের নেতৃত্বে তিনজন চালক, দুইজন সহকারী ও বাস মালিককে গ্রেপ্তার করা হয়। জব্দ করা হয় তিনটি বাসও।

সারোয়ার পুলিশ পদক এর আগেও পেয়েছেন। ২০১৭ সালের নভেম্বর থেকে ২০১৮ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত বিভিন্ন অভিযানে জেএমবির ১৭ সদস্যসহ বেশ কিছু অভিযানের জন্য তাকে বাংলাদেশ পুলিশ পদক- বিপিএম সেবা দেওয়া হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

প্রশাসন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :