ভদ্রা নদে চারটি লবণ পানির কুমির অবমুক্ত

বাগেরহাট প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৬:১৪

সুন্দরবনে কুমিরের প্রজনন ও বংশবৃদ্ধির লক্ষ্যে লবণ পানি প্রজাতির চারটি  কুমির অবমুক্ত করা হয়েছে।

পরিবেশ, বন ও জলবায়ু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী হাবিবুন নাহার দুপুরে সুন্দরবনের গহীনে ভদ্রা নদীতে ৯ বছর বয়সী একটি পুরুষ ও ৩টি নারী কুমির অবমুক্ত করেন।

এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন খুলনা বিভাগীয় বন সংরক্ষক (সিএফ) আমির হোসাইন চৌধুরী, বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মাহমুদুল হাসান এবং বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগের বিভাগীয় কর্মকর্তা (ডিএফও) মদিনুল আহসান।

বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের করমজল বন্যপ্রাণি প্রজনন কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আজাদ কবির বলেন, আগেও সুন্দরবনে বিভিন্ন নদ-নদীতে ৯১টি লবন পানির কুমির অবমুক্ত করা হয়েছিল। বিলুপ্ত প্রায় এ প্রজাতির কুমিরের প্রজনন ও বংশ বিস্তারের উদ্দেশ্যে ২০০০ সালে সুন্দরবনের করমজলে দেশের একমাত্র কুমির লালনপালন ও প্রজনন কেন্দ্র গড়ে তোলে বন বিভাগ।

২০০৫ সালে করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রের কুমির রোমিও ও জুলিয়েট জুটির ডিম থেকে বাচ্চা ফুটতে শুরু করে। বর্তমানে করমজল কুমির প্রজনন কেন্দ্রে ছোট বড় মিলিয়ে ২০৩টি কুমির রয়েছে।

বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগের বিভাগীয় কর্মকর্তা (ডিএফও) মদিনুল আহসান সাংবাদিকদের বলেন, সুন্দরবনের নদ নদীতে কুমিরের সংখ্যা বৃদ্ধি করে প্রতিবেশ ও পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্র থেকে ৪টি কুমির ভদ্রা নদীতে অবমুক্ত করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে আরও কুমির সুন্দরবনের বিভিন্ন নদী ও খালে অবমুক্ত করা হবে।

ঢাকাটাইমস/০৯ফেব্রুয়ারি/ওআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :