গাছে বেঁধে কোপাল বাবা ও সৎ ভাই

মাসুদ আলম, কুমিল্লা
 | প্রকাশিত : ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৫:০৬

কুমিল্লার দাউদকান্দিতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে গাছে শিকলে বেঁধে এক যুবককে কোপানোর অভিযোগ উঠেছে সৎ ভাই এবং বাবার বিরুদ্ধে। এই ঘটনার ভিডিও ও ছবি ফেসবুকে ছড়িয়েছে।

ভুক্তভোগী যুবকের নাম শাহীন। তার মামা মনসুর আলী শনিবার এই ঘটনায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে দাউদকান্দি থানায় মামলা করেছেন। পুলিশের কাছে দেওয়া অভিযোগে বলা হয়, গত বুধবার উপজেলার সুন্দলপুর ইউনিয়নের সুন্দলপুর গ্রামে (পূর্বপাড়ায়) এই ঘটনা ঘটে।

মনসুরের অভিযোগ, শাহীনের বাবা সেলিম মিয়া দ্বিতীয় বিয়ে করার পর দুই জনের মধ্যে বসত বাড়ি ও জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল। গত বুধবার বাবা ও সৎ ভাইয়ের ভাড়া করা একদল দুর্বৃত্ত শাহীনকে গাছে শেকল দিয়ে বেঁধে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ও পিটিয়ে গুরুতর জখম করে।

এ সময় তার কাছে থাকা একটি স্বর্ণের চেইন ও একটি মুঠোফোন ছিনিয়ে নেয় দুর্বৃত্তরা। পরে একালাবাসী পুলিশকে খবর দিলে তারা শাহীনকে উদ্ধার করে গৌরীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

সুন্দলপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাসুদ আলম বলেন, শাহীন সরল প্রকৃতির ছেলে। মানসিকভাবে একটু অসুস্থও। গত বুধবার তার বাবা সেলিম ও তার সৎ ভাই মিলে জমি সংক্রান্ত বিরোধ নিয়ে তাকে গাছের সাথে শিকলে বেঁধে কুপিয়ে জখমের অভিযোগ শুনেছি। আমি পূর্বে একাধিকবার তাদের জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে বসে সমস্যা সমাধান করেছি। 

সেলিম মিয়ার সঙ্গে বলতে তার মোবাইল ফোনে একাধিকবার চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি।

দাউদকান্দি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসেন বলেন, ‘এ ব্যাপারে থানায় একটি মামলা হয়েছে। মামলার আসামিরা হলেন- শিরিন আক্তার, সাইফুল, ফাতেমা বেগম, জান্নাত, সেলিম, আনোয়ার হোসেন, রাজ্জাক, শরীফ, ও আলমগীর হোসেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :