র‌্যাবের অভিযানে বন্ধ ছয় কোচিং সেন্টার, আট জনের জেল

নিজস্ব প্রতিবেদক,ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২১:১৫ | প্রকাশিত : ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২০:৩৬
ফাইল ছবি

রাজধানীর ধানমন্ডি ও ফার্মগেট এলাকায় অভিযান চালিয়ে ছয়টি কোচিং সেন্টার সিলগালা করে দিয়েছে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় সাত জনকে এক মাসের এবং এক জনকে ১৫ দিনের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। চার জনকে করা হয়েছে জরিমানা।

রবিবার দুপুরে ধানমন্ডির ঝিগাতলা ও ফার্মগেটে র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলমের নেতৃত্বে এই অভিযান চালানো হয়।

নানা সময় পাবলিক পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁসে কোচিং সেন্টারের সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ আছে। চলমান এসএসসি পরীক্ষার সময় সব ধরনের কোচিং সেন্টার বন্ধের সিদ্ধান্ত এসেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে। আবার স্কুলে কোচিং বন্ধে সরকারের নীতিমালা বৈধ বলে রায় দিয়েছে হাইকোর্ট।

তবে নির্দেশনা অমান্য করে এসএসসি পরীক্ষা চলাকালেই কোচিং চালিয়ে যাওয়ার তথ্য আসছে বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রতিবেদনে। আর এর প্রেক্ষিতে এই অভিযান চালানোর কথা জানিয়েছেন অভিযান চালানো ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম।

অভিযান চলাকালে ঝিগাতলায় জয়যাত্রা, নবদিগন্ত, অনন্য ও ব্লেজ নামে কোচিং সেন্টারে ক্লাস চলতে দেখা যায়। ষষ্ঠ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের চার শতাধিক শিক্ষার্থী সে সময় ক্লাসে উপস্থিত ছিল। আর নিষেধাজ্ঞার মধ্যে ক্লাস নেওয়ার বিষয়ে কোচিং সেন্টারের শিক্ষক এবং মালিকদের কেউ জবাব দিতে পারেননি।

তাৎক্ষণিক কোচিং সেন্টারগুলো বন্ধ করে দিয়ে সেগুলোতে তালা ঝুলিয়ে দেয় র‌্যাব। সেই সঙ্গে চারটি কোটিং সেন্টারের ১০ জনকে এক হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়।

পরে দলটি অভিযান চালায় ফার্মগেটের মবিডিক কোচিং সেন্টারে। সেখানেও ক্লাস চলছিল। সেটি তালাবদ্ধ করে দিয়ে চার জনকে এক মাসের এবং এক জনকে ১৫ দিনের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

গ্রিন রোড এলাকায় ম্যাবস কোচিংয়ে গিয়েও ক্লাস নিতে দেখা যায়। সেখানে কারাদণ্ড দেওয়া হয় তিনজনকে।

ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম জানান, তাদের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে তাদের মধ্যে চার জন কোচিং মালিক। অন্যরা শিক্ষক এবং কর্মকর্তা। এই ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকতে বলেও জানান তিনি।

ঢাকাটাইমস/১০ফেব্রুয়ারি/এএ/ডব্লিউবি

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজধানী বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :