ইডেনের সাবেক অধ্যক্ষসহ দুই নারী খুন

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০০:১৬ | প্রকাশিত : ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২২:৪৬

রাজধানীর এলিফ্যান্ট রোড এলাকায় নিজ বাসায় খুন হয়েছেন ইডেন মহিলা কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ মাহফুজা চৌধুরী পারভীন। রবিবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বাড়ির গৃহকর্মী পলাতক রয়েছে। পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।

নিউমার্কেট থানার উপরিদর্শক মাহফুজার রহমান বলেন, আজ রবিবার রাতে এলিফ্যান্ট রোডের সুকন্যা টাওয়ারের নিজ বাসায় তিনি খুন হয়েছেন বলে খবর পাই। পরে সেখানে আমাদের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা গেছেন।

ঢাকা মহানগর পুলিশের রমনা বিভাগের উপকমিশনার মারুফ হোসেন সরদার বলেন, এলিফ্যান্ট রোডের সুকন্যা টাওয়ারের বাসায় থাকতেন মাহফুজা চৌধুরী। সেখানেই খুন হয়েছেন তিনি। তাঁর বাসার দুই গৃহকর্মী পালিয়েছে। পুলিশ খুনি হিসেবে প্রাথমিকভাবে তাদেরই সন্দেহ করছে। তিনি বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেছে। মরদেহ উদ্ধারের প্রক্রিয়া চলছে।

এদিকে রাজধানীর যাত্রাবাড়ীর উত্তর কুতুবখালী স্কুলরোড এলাকায় একটি ভবনে সালমা নামে এক নারীকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় রাবেয়া নামে আরেক নারী আহত হয়েছেন।

ছয়তলা ওই ভবনের বাড়িওয়ার ছেলে ওমর ফারুক গণমাধ্যমকর্মীদের বলেন, চার থেকে পাঁচ মাস আগে আবুল কালাম নামে এক ব্যবসায়ী তার পরিবার নিয়ে চারতলার রুমটি ভাড়া নেন। সন্ধ্যায় বাইরের থেকে ওই রুমের দরজায় তালা লাগানো ছিল। ভেতরে থাকা আহত রাবেয়ার চিৎকার শুনে থানায় খবর দেওয়া হয়। খবর পেয়ে পুলিশ এসে দরজা ভেঙে আহত রাবেয়াকে নিকটস্থ হাসপাতালে নিয়ে যায়। আর সালমার মরদেহ উদ্ধার করে। হত্যাকা-ের বিষয় কিছু জানাতে পারেননি ওমর ফারুক। তবে ঘটনার পর থেকে সালমার কথিত স্বামী আবুল কালামকে পাওয়া যাচ্ছে না।

যাত্রাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওয়াজেদ আলী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, নিহত সালমার কথিত স্বামী হলেন আবুল কালাম ও ননদ রাবেয়া। হত্যাকাণ্ডটি কে বা কারা ঘটিয়েছে তা এখনও জানা যায়নি। তবে নিহত সালমার শরীরের হাতুড়ি পেটানো চিহ্ন পাওয়া গেছে।

ঢাকাটাইমস/১০ ফেব্রুয়ারি/এএ/ ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজধানী বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :