হলে ভোটকেন্দ্র রেখে ডাকসু নির্বাচনের তফসিল

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাবি
 | প্রকাশিত : ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১১:২০

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে। বিভিন্ন ছাত্র সংগঠনের বিরোধীতার পরও হলকেই ভোটকেন্দ্র হিসেবে রাখা হয়েছে। সোমবার সকালে নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে ডাকসু নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন  প্রধান রিটার্নিং কর্মকর্তা অধ্যাপক ড. এস এম মাহফুজুর রহমান।

আগামী ১১ মার্চ অনুষ্ঠেয় এই নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার শেষ সময় ২ মার্চ; যাচাই-বাছাই শেষে প্রার্থী তালিকা প্রকাশ হবে ৩ মার্চ। ভোটার তালিকা প্রকাশ হবে ৫ মার্চ। ১১ মার্চ সকাল ৮টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত হলগুলোতে স্থাপিত ভোটকেন্দ্রে গিয়ে শিক্ষার্থীরা পরিচয়পত্র দেখিয়ে ভোট দিতে পারবেন। হল সংসদের তফসিল হল কর্তৃপক্ষ পরে জানিয়ে দেবে বলে জানান মাহফুজুর রহমান।

তিন দশক পর ডাকসু নির্বাচন নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা চলছে। এই বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশাপাশি দেশের অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়েও ভোটের তোড়জোড় শুরু হয়েছে। নির্বাচনকে সামনে রেখে দীর্ঘদিন পর বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ঢুকতে পেরেছে বিএনপির ছাত্রবিষয়ক সংগঠন জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল। তারা নির্বিঘ্নে মিছিলও করেছে।

সর্বশেষ ডাকসু নির্বাচন হয়েছিল ১৯৯০ সালে। এরপর একাধিকবার ভোটের ঘোষণা হলেও শেষ পর্যন্ত আর নির্বাচন হয়নি। এবার আদালত পর্যন্ত গড়িয়েছে বিষয়টি। আর মার্চের মধ্যে নির্বাচন করতে আদালতের নির্দেশ আছে।

বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর আচার্য রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ গত বছর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সমাবর্তনে গিয়ে ডাকসু নির্বাচন আয়োজন করতে বলেছিলেন। তবে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তখন উদ্যোগ নেয়নি।

ডাকসু নির্বাচন চেয়ে আদালতে রিট আবেদন হয়েছিল, তাতে ছয় মাসের মধ্যে নির্বাচন আয়োজনের নির্দেশনা আসে। এরপর উপাচার্য আখতারুজ্জামান প্রতিদ্বন্দ্বী ছাত্র সংগঠনগুলোর সঙ্গে একাধিকবার বৈঠকে বসেন।

নির্বাচনে ভোটকেন্দ্র কোথায় হবে এ নিয়ে ছাত্র সংগঠনগুলোর মধ্যে বিরোধ রয়েছে। ক্ষমতাসীন দলের ছাত্র সংগঠন ছাত্রলীগের প্রতিদ্বন্দ্বী সংগঠনগুলো চাইছে হলের বাইরে টিএসসিতে ভোটকেন্দ্র স্থাপনের আবেদন জানিয়েছিল। তবে ছাত্রলীগ এমন দাবিরো বিরোধীতা করে।

ঢাকা টাইমস/১১ফেব্রুয়ারি/একে

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :