চাঁদাবাজির প্রতিবাদে অটোরিকশা শ্রমিকদের বিক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিবেদক,লক্ষ্মীপুর
 | প্রকাশিত : ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২২:২২

সিএনজি অটোরিকশায় বেপরোয়া চাঁদাবাজিতে অতিষ্ঠ চালক ও মালিকরা। এ ঘটনার প্রতিবাদে সোমবার সকাল থেকে ঝুমুর সিনেমা হল, কালীবাজার সড়ক, দক্ষিণ তেমহুনীসহ বিভিন্ন স্থানে যানবাহন বন্ধ রেখে বিক্ষোভ করেন শ্রমিকরা।

অপরদিকে গাড়ির মালিকরা অভিযোগ করে বলেন, বিআরটিএর গাফিলতির কারণে সিএনজি রেজিস্ট্রেশন করতে দিনের পর দিন মাসের পর এবং বছরও চলে যায়। কিন্তু রেজিস্ট্রেশন পাওয়া যাচ্ছে না। পাশাপাশি ড্রাইভিং লাইসন্সের বেলায় একই অবস্থা বিরাজ করছে।

এদিকে সড়কে নতুন গাড়ি নামানোর আগে ৫ থেকে ১০ হাজার টাকায় চৌধুরী মিয়া প্রকাশ লেভার চৌধুরীর কাছে ভর্তি করাতে হয়। এতে করে সড়কে গেলে পুলিশ গাড়ি আটকিয়ে মামলা ও জরিমানা আদায় করছে।

লক্ষ্মীপুর বিআরটিএ সহকারী পরিচালক আনোয়ার হোসেন বিআরটিএর হয়রানির কথা অস্বীকার বলেন, এ জেলায় প্রায় ১০ হাজারেরও বেশি সিএনজি অটোরিকশা চলাচল করে। এর মধ্যে ৭ হাজার ২শ সিএনজির রেজিস্ট্রেশন রয়েছে। বাকি যেসব সিএনজি সড়কে চলাচল করে, তাদের কোনটিরও রেজিস্ট্রেশন নেই। এসব চালকদের মধ্যে গুটি কয়েক চালক ছাড়া বাকিদের কোন লাইসন্সও নেই।

পুলিশ সুপার আসম মাহাতাব উদ্দিন  সোমবার সকালে ঝুমুর সিনেমা হল এলাকায় গেলে চালকরা অভিযোগ করে বলেন, লেভার চৌধুরী, বেলাল হোসেন, ইউসুফসহ বেশ কয়েকজন চাঁদাবাজ পুলিশের কথা বলে প্রতিদিন ২শ থেকে আড়াইশ টাকা ও প্রতিমাসে ৩শ টাকা হারে তাদের চাঁদা আদায় করে। চাঁদা না দিলে মারধর করা হয় নানা হয়রানির মধ্যে পড়তে হয় তাদের। এ সময় চাঁদার টোকেনও দেখানো হয় পুলিশ সুপারকে। পরে পুলিশ সুপার আসম মাহাতাব উদ্দিন চাঁদা না দেয়ার নির্দেশ দেন এবং  পরিবহন খাতে কোন চাঁদাবাজি চলবে বলে হুঁশিয়ারি দেন তিনি।

(ঢাকাটাইমস/১১ফেব্রুয়ারি/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :