নেতা জাপার, মার্কা চান নৌকা

আব্বাছ হোসেন, লক্ষ্মীপুর
 | প্রকাশিত : ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৪:৫৪

লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলায় জাতীয় পার্টির নেতা আজাদ উদ্দিন চৌধুরী প্রকাশ চেয়ারম্যান পদে লড়তে এবার আওয়ামী লীগ দলীয় মনোনয়ন ফরম কিনেছেন। স্থানীয় আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে নাম নামে সুপারিশও পাঠানো হয়েছে। আর তিনি মনোনয়ন পেতে নানা চেষ্টা তদবির চালিয়ে যাচ্ছেন। এ ঘটনায় আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতাকর্মীদের মধ্যে দেখা দিয়েছে বিরূপ প্রতিক্রিয়া।

আগামী ৩১ মার্চ এই উপজেলায় নির্বাচন হবে। প্রথম ধাপে ১০ মার্চ ৮৭টি উপজেলায় ভোটের মাধ্যমে পাঁচ ধাপের উপজেলা নির্বাচন শুরু হতে যাচ্ছে। চতুর্থ ধাপে ৩১ মার্চ যে কয়টি উপজেলায় নির্বাচন হবে, সেখানে রামগতি উপজেলায় হবে ভোট।

আজাদ উদ্দিন চৌধুরী ২০১৪ সালের দশম সংসদ নির্বাচনে রামগতি-কমলনগর আসনে (লক্ষ্মীপুর-৪) আওয়ামী লীগের মোহাম্মদ আবদুল্লাহর বিপরীতে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে লড়ে পরাজিত হন। পরে তিনি পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন না পেয়ে ২০১৫ সালের ২ ডিসেম্বর হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের হাতে ফুল দিয়ে জাতীয় পার্টিতে যোগ দেন। এই দলের প্রার্থী হিসেবে রামগতি পৌরসভায় মেয়র পদে লড়ে আওয়ামী লীগের মেজবাহ উদ্দিন মেজুর কাছে হেরে যান।

আজাদ আবার আওয়ামী লীগের ফিরেছেন, এমন তথ্য নেই। অথচ গত ৩০ জানুয়ারি রামগতি উপজেলা চেয়ারম্যান পদে দলীয় মনোনয়ন দিতে দলের বর্ধিত সভায় তিনি যোগ দেন তার সহযোগীদের নিয়ে। সেখানে এ নিয়ে হট্টগোলও হয়।

আজাদ উদ্দিন এক সময় বিএনপির রাজনীতিতে সক্রিয়ভাবে জড়িত ছিলেন। ২০০৫ সালে তিনি রামগতি উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্যও ছিলেন। পরে চাচাশ্বশুর বিএনপির সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুর রব চৌধুরী বিএনপি ছেড়ে আওয়ামী লীগে আসলে আজাদও দল পাল্টান। ২০১০ সালে আওয়ামী লীগের সমর্থন নিয়ে রামগতি পৌরসভার চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনও করেন। তবে হেরে যান।

রামগতি উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল ওয়াহেদ বলেন, ‘আজাদ উদ্দিন চৌধুরী আওয়ামী লীগের কেউ নন। তিনি বর্তমানে জাতীয় পার্টির রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। এর আগে বিএনপি করতেন। তাকে দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হলে দলের ভাবমুর্তি ক্ষুণœ হবে। তৃণমূলের নেতাকর্মীরা তা মেনে নেবে না।

রামগতি উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক মেজবাহ উদ্দিন হেলাল প্রকাশ বলেন, ‘আজাদ উদ্দিন চৌধুরী এরশাদের হাতে ফুলের তোড়া দিয়ে জাতীয় পার্টিতে যোগ দিয়েছেন। তৃণমূলের নেতাকর্মীদের দাবি, দলের দুর্দিনে যারা হাল ধরেছেন, তাদের মূল্যায়ন করা হোক।’

এ ব্যাপারে জানতে আজাদ উদ্দিন চৌধুরীর সাথে একাধিকবার মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :