চরফ্যাশনে চাঁদা না পেয়ে জাল পোড়ালেন ওসি!

ভোলা প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৮:৩৪
ফাইল ছবি

ভোলার চরফ্যাশন উপজেলায় জেলেদের ঘরে অভিযান চালিয়ে অবৈধ জাল জব্দ করার নামে চাঁদা দাবি এবং না পেয়ে জাল পোড়ানোর অভিযোগ উঠেছে দক্ষিণ আইচা থানার ওসি মাসুম তালুকদারের বিরুদ্ধে। উত্তেজিত জেলেরা তাকে অবরুদ্ধ করলে পরে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা তাকে উদ্ধার করেন।

মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে চারটার দিকে উপজেলার দক্ষিণ আইচা থানাধীন বিচ্ছিন্ন চর কুকরিমুকরি ইউনিয়নের চর পাতিলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

একাধিক জেলে অভিযোগ করে বলেন, মঙ্গলবার দক্ষিণ আইচা থানার ওসি মাসুম তালুকদার কয়েকজন পুলিশ সদস্য নিয়ে চর পাতিলা গ্রামে অবৈধ জাল উদ্ধারের নাম করে জেলেদের ঘরে ঘরে অভিযান চালান। এ সময়  বিপুল পরিমাণ জাল জব্দ করে এক জায়গায় স্তূপ করেন। এরপর জেলেদের সমঝোতার কথা বললে তারা রাজি না হওয়ায় জালে আগুন ধরিয়ে দেন তিনি।

এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ জেলেরা ওসিকে অবরুদ্ধ করেন। পরে চর পাতিলা ইউপি সদস্য মো. বাদশা ও সাবেক ইউপি সদস্য আবুল কাশেম জেলেদের কাছ থেকে তাকে উদ্ধার করে নিয়ে যান।

অবৈধ জাল উদ্ধারে ওসির অভিযান সম্পর্কে জানেন না চরফ্যাশন উপজেলার মৎস্য অফিস।  সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মারুফ হোসেন মিনার বলেন, ‘অবৈধ জাল উদ্ধারে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও মৎস্য বিভাগের জনবল নিয়ে অভিযান চালানোর নিয়ম। কিন্তু ওসির এ ধরনের অভিযানের বিষয়টি আমার জানা নেই। জব্দ মালামাল পুড়ানো কিংবা ধ্বংস করার ক্ষেত্রে অবশ্যই নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতি থাকতে হয়।’

দক্ষিণ আইচা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুম তালুকদার দাবি করেন তিনি কোনো চাঁদা দাবি করেননি এবং অভিযানে একজন ম্যাজিস্ট্রেট ছিলেন। মোবাইল ফোনে ওসি বলেন, মঙ্গলবার চর পাতিলায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল্লাহ আর মামুনকে নিয়ে অভিযানে অবৈধ জাল জব্দ করে পোড়ানোর সময় স্থানীয় জেলেরা ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে। পরে তারা জাল পুড়িয়ে দিয়ে সেখান থেকে চলে আসেন। তিনি কোনো চাঁদা দাবি করেননি এবং তাকে কেউ অবরুদ্ধ করেনি বলেও জানান তিনি।

ওসির বক্তব্য নাকচ করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, তিনি সকাল থেকে চরফ্যাশন থানার চারজন পুলিশ সদস্য নিয়ে আট কপাট এলাকায় মেঘনা নদীতে অভিযান চালান। তার সঙ্গে ওসি মাসুম তালুকদার ছিলেন না। চর পাতিলায় জাল জব্দ ও পোড়ানোর ব্যাপারে কিছু জানেন না তিনি।

(ঢাকাটাইমস/১৩ফেব্রুয়ারি/মোআ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :