‘রো‌হিঙ্গা প্রত্যাবাসন নি‌শ্চিতের দায়িত্ব আন্তর্জা‌তিক সম্প্রদা‌য়ের’

নিজস্ব প্র‌তি‌বেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২০:২৩

গণহত্যা ও নির্যাতনের মুখে বাংলাদেশে এসে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের জন্য সীমান্ত খুলে দেয়ার মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ শুধু তাদের জীবনই বাঁচায়নি, বরং গোটা অঞ্চলকে স্থিতিশীল রেখেছে ব‌লে মন্তব্য ক‌রে‌ছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।

বৃহস্পতিবার জেনেভায় ওআইসি’র রাষ্ট্রদূত ও প্রতিনিধিদের এক সম্মেলনে অংশ নিয়ে এসব কথা বলেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী।

প্র‌তিমন্ত্রী ব‌লেন, 'মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের নিরাপদ ও মর্যাদাপূর্ণ প্রত্যাবাসনসহ তাদের মৌলিক অধিকার ও স্বাধীনতা নিশ্চিত করাটা আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সম্মিলিত দায়িত্বের মধ্যে পড়ে।'

এ সময় প্র‌তিমন্ত্রী রো‌হিঙ্গা‌দের নিরাপদ প্রত্যাবাস‌নে আন্তর্জা‌তিক সম্প্রদায়‌কে এ‌গি‌য়ে আসার আহ্বান জানান।

জাতিসংঘের ‘যৌথভাবে রোহিঙ্গা মানবিক সংকট মোকাবিলা পরিকল্পনা ২০১৯’ প্রকাশের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে বুধবার জেনেভায় গেছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী। শুক্রবার জাতিসংঘে পরিকল্পনাটি উপস্থাপন করা হবে।

একই‌দি‌নে জাতিসংঘের মানবাধিকারবিষযক হাই কমিশনার মিশেল ব্যাচেলেটের সঙ্গেও বৈঠক করেছেন পররাষ্ট্র প্র‌তিমন্ত্রী। শুক্রবার ঢাকার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এসব তথ্য জানায়।

‌বৈঠ‌কে রো‌হিঙ্গা সমস্যা সমধান ও বর্তমান প‌রি‌স্থি‌তি নি‌য়ে আ‌লোচনা হয়।

এর আগে বৃহস্পতিবার ওআইসিভুক্ত দেশগুলোর রাষ্ট্রদূত ও প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন শাহরিয়ার আলম। নিরাপদ ও মর্যাদাপূর্ণ রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নিশ্চিত করতে মিয়ানমারে সহায়ক পরিবেশ তৈরির জন্য ওআইসি সদস্যদের কাছ থেকে সমর্থন চে‌য়ে‌ছেন শাহ‌রিয়ার আলম।

জবা‌বে ওআইসিভুক্ত তুরস্ক, সৌদি আরব, মিসর, ইন্দোনেশিয়া, পাকিস্তান, লেবানন, জর্ডান, লিবিয়া, ফিলিস্তিন ও মালদ্বীপের রাষ্ট্রদূত ও প্রতিনিধিরা রো‌হিঙ্গা সমস্যা সমাধা‌নে বাংলা‌দে‌শের পা‌শে থাকার আশ্বাস দি‌য়ে‌ছেন।

(ঢাকাটাইমস/১৫ ফেব্রুয়া‌রি/এনআই/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :