বইমেলায় ‘সস্তার তিন অবস্থা’ ফ্রি ওয়াইফাইয়ের

আল আমিন রাজু, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৭:২৬

বরাবরের মতো অমর একুশে গ্রন্থমেলায় বিনা মূল্যে ইন্টারনেট (ফ্রি ওয়াইফাই) সুবিধা থাকলেও সুফল পাওয়া যাচ্ছে না। মেলায় আগত দর্শনার্থী, পাঠক ও বিক্রেতারা তাদের ফোনে সংযু্ক্ত করতে পারছেন না এই বিনামূল্যের ওয়াফাই। কষ্টেসৃষ্টে যদিও সংযোগ দেওয়া যায়, তবে সেই ইন্টারনেটে গতি থাকে না।

আবার মেলায় আগত অনেকে জানেন না বাংলা একাডেমি চত্বর ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ফ্রি ওয়াইফাই নেটওয়ার্ক রয়েছে।

বেইমেলায় যারা ঘুরতে আসেন, তাদের বেশির ভাগই তরুণ-তরুণী। মেলায় ঘোরার পাশাপাশি বাংলা একাডেমির পুকুরপাড়ে আড্ডার আসর বসে তরুণদের। বন্ধুদের সঙ্গে অবসর সময় কাটালেও তারা জানেন না বইমেলায় ডিজিটাল সেবার খবর।

আবার বইমেলায় বাংলা একাডেমির প্রাঙ্গণে বিভিন্ন প্রকাশনী ও মিডিয়ার জন্য বরাদ্দকৃত স্টলে কর্মরত প্রতিনিধিরা বইমেলায় ইন্টারনেট সেবার কথা জানলেও ব্যবহার করতে পারছেন না।

গত এক সপ্তাহ ধরে অনেকবার চেষ্টা করেও ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারছেন না তারা।

বাংলা একাডেমির পুকুরপাড়ের স্টলগুলোর প্রতিনিধিদের অভিযোগ, ইন্টারনেট না-পাওয়া নিয়ে অভিযোগ জানানোর নম্বর আছে, কিন্তু ফোন ধরে না কেউ। অনেকবার চেষ্টা করেও কোনো সাড়া পাওয়া যায় না।

বইমেলায় ফ্রি ইন্টারনেট নিয়ে কথা হয় মেলায় ঘুরতে আসা কয়েকজনের সঙ্গে। বিনা মূল্যে ইন্টারনেটের কথা জানতে চাইলে একজন বলেন, ‘আমি আপনার কাছ থেকে প্রথম শুনলাম। আগে জানতাম না।’

তবে কয়েকজন তরুণ জানালেন তারা জানতেন কিন্তু অনেক চেষ্টা করেও ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারছেন না।

মেলায় ফ্রি ইন্টারনেটের এই বেহাল দশা নিয়ে জানতে চাইলে মেলায় ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান ডট ইন্টারনেটের টেকনিক্যাল ম্যানেজার মিঠু হাওলাদার বলেন, ‘মেলায় ফ্রি ইন্টারনেট সুবিধার কথা সবাইকে জানানোর কাজ আমাদের নয়। এই দায়িত্ব মেলায় ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট প্রতিষ্ঠান নিরাপদ কমিউনিকেশন লিমিটিডের। তারা এই বিষয়ে জানাতে পারবে।’

বিনামূল্যে ওয়াইফাই দেখভালের দায়িত্ব সম্পর্কে জানিয়ে মিঠু হাওলাদার বলেন, ‘এ পর্যন্ত অনলাইনে চার হাজারের বেশি রেজিস্ট্রেশন করেছেন। দেড় থেকে দুই শ ইউজার একসঙ্গে ব্রাউজ করছে। কোনো অভিযোগ পেলে আমরা তাৎক্ষণিক সেবা দেওয়ার চেষ্টা করছি।’ এ জন্য তাদের প্রতিষ্ঠানের একজন কর্মী সার্বক্ষণিক মেলায় উপস্থিত থাকে বলে জানান তিনি।

তবে বাংলা একাডেমি থেকে বইমেলায় বিভিন্ন সেবার দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের যোগাযোগ নম্বর দেওয়া হয়। সেই তালিকায় ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানের নম্বরে যোগাযোগ করা হলে তা বন্ধ পাওয়া যায়।

বইমেলায় ডট ইন্টারনেটের পাশাপাশি সরকারি প্রতিষ্ঠান এক্সেসটু ইনফরমেশন (এটুআই) মাসব্যাপী বইমেলায় দর্শনার্থীদের বিনামূল্যে  ওয়াইফাই ইন্টারনেট সেবা দিচ্ছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

বইমেলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :