মালামাল পরিবহনের আড়ালে ফেনসিডিল সরবরাহ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২১:২৪ | প্রকাশিত : ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২০:০৪

সীমান্ত এলাকা থেকে কমমূল্যে ফেনসিডিল কিনে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় বিক্রি করত একটি চক্র। এই কাজে ব্যবহৃত হতো নিজস্ব ট্রাকও। ঢাকা থেকে মাদক ব্যবসায়ীরা অর্ডার করলেই কাঙ্ক্ষিত গন্তব্যে পৌঁছাতো ফেনসিডিল। এজন্য তাদের দিতে হতো ৩০ হাজার টাকা।

শনিবার দুপুরে রাজধানীর মোহাম্মদপুর এলাকায় পাথরবোঝাই ট্রাক থেকে বিপুল পরিমাণ ফেনসিডিল উদ্ধার করেছে র‌্যাব। এসময় তিন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা র‌্যাবের কাছে এসব তথ্য দিয়েছে।

আটক তিনজন হলেন- কামাল হোসেন, খাইরুল ইসলাম, রাখেজ মোল্লা।

র‌্যাব-২ এর কোম্পানি কমান্ডার এসপি (সিপিসি-৩) মোহাম্মদ মহিউদ্দিন ফারুকী ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘ফেনসিডিল বোঝায় একটি ট্রাক রাজধানীতে মাদক বিক্রি করতে আসছে এমন খবরে মোহাম্মদপুরের বেড়িবাঁধ তিন রাস্তা মোড়ে অবস্থান করে র‌্যাবের একটি দল। এসময় পাথর বোঝায় একটি ট্রাককে থামতে বলা হলে র‌্যাবের উপস্থিত টের পেয়ে কয়েকজন পালিয়ে যায়। র‌্যাব সদস্যরা দৌড়ে তাদের গ্রেপ্তার করে। পরে ট্রাকটি তল্লাশি করে চালকের ছিটের নিচে অভিনব কায়দায় রাখা চার বস্তা (৮৯৬ বোতল) ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়।’

মহিউদ্দিন ফারুকী বলেন, ‘এই চক্রটি প্রতি মাসে দুই থেকে তিনটি চালান রাজধানীতে আনার টার্গেট নিয়ে কাজ করত। এতে লক্ষাধিক টাকা তাদের পকেটে আসত। কুরিয়ার সার্ভিসের মতো তারা পণ্য গন্তব্যে পৌঁছে দিত। এর আগেও বেশ কয়েকটি চালান তারা রাজধানীতে পৌঁছে দিয়েছে। ট্রাক মালিকের অজান্তে বিভিন্ন মালামাল পরিবহনের আড়ালে সীমান্তবর্তী জেলাগুলো থেকে মাদকদ্রব্য কিনে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় সরবরাহ ও বিক্রয় করত।’

‘আজকের অভিযানে যেসব ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়েছে সেগুলো গাইবান্ধার সীমান্ত এলাকা থেকে আনা হয়েছিল। রাজধানীতে তাদের কাঙ্ক্ষিত ব্যবসায়ীর হাতে পৌঁছালে তারা ৩০ হাজার টাকা পেত। তারা বাড়তি টাকার লোভে আইনশৃঙ্খখলা বাহিনীর চোখ ফাঁকি দিয়ে অভিনব পন্থায় রাজধানীতে মাদক সরবরাহ করত।’

(ঢাকাটাইমস/১৬ফেব্রুয়ারি/এসএস/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজধানী বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :