শেবাচিমের গাইনি প্রধানকে বরখাস্তের আবেদন

বরিশাল ব্যুরো, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৪:৫৩

ডাস্টবিনে সংরক্ষিত ২২ নবজাতকের অঙ্গপ্রত্যঙ্গ পাওয়ার ঘটনায় বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (শেবাচিম)গাইনি বিভাগের প্রধান ডা. খুরশিদ জাহানকে বরখাস্ত করার আবেদন স্বাস্থ্য অধিদফতরে পাঠানো হয়েছে।

একই সঙ্গে ওই বিভাগের ওয়ার্ডের ইনচার্জ নার্স জোসনা বেগমকেও বরখাস্তের আবেদন করা হয়েছে। এ ঘটনা তদন্তে গঠিত তিন সদস্যের কমিটিকে তিন কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

মঙ্গলবার শেবাচিম হাসপাতাল পরিচালক ডা. বাকির হোসেন এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এদিকে ওই ঘটনায় আজ সকাল নয়টার দিকে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জরুরি বৈঠকে বসে।  বৈঠক থেকে তদন্ত কমিটি গঠন করে তিনদিনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

পরিচালক ডা. এসএম বাকির হোসেন বলেন, তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনে গাইনি বিভাগের প্রধান ডা. খুরশিদ জাহান এবং ওই বিভাগের ওয়ার্ড ইনচার্জ নার্স জোসনা বেগম ছাড়াও অন্য কারও বিরুদ্ধে দায়িত্বে অবহেলার প্রমাণ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বাকির বলেন, বৈঠক শেষে ডা. খুরশিদ জাহান এবং ওই বিভাগের ওয়ার্ড ইনচার্জ নার্স জোসনা বেগমকে সাময়িক বরখাস্তের আবেদন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে পাঠানো হয়েছে। আবেদনটি অধিদপ্তর থেকে মন্ত্রণালয়ে যাবে। এরপরই তাদের বরখাস্ত আদেশ কার্যকর হবে।

হাসপাতালের ৫০ বছরের ইতিহাসে এটাই প্রথম এবং লজ্জাজনক ঘটনা উল্লেখ করে হাসপাতাল পরিচালক বলেন, ‘এ ঘটনায় কারোরা দায় এড়ানোর সুযোগ নেই। তবে গাইনি বিভাগের প্রধান কিংবা রেজিস্টার, সহকারী রেজিস্টার বা নার্স ইনচার্জও যদি বিষয়টি আমাদের জানাতেন তবে এমনটা হতো না।’

এদিকে ডাস্টবিন থেকে ২২ নবজাতকের মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় কোতোয়ালী মডেল থানায় অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়েছে। সোমবার রাতে বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের পরিচ্ছন্নতা কর্মী মো. মিজান বাদী হয়ে কোতোয়ালী মডেল থানায় এ মামলাটি দায়ের করেন।

ঢাকাটাইমস/১৯ফেব্রুয়ারি/ডিএম

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :