‘বাংলাদেশ ব্যাংকের ইতিহাস’ বইটি বাজেয়াপ্তের নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৭:১৭ | প্রকাশিত : ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৭:০৪

ইতিহাস বিকৃতির দায়ে ‘বাংলাদেশ ব্যাংকের ইতিহাস’ বইটি বাজেয়াপ্তের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে ওই বইয়ের সম্পাদক বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক নির্বাহী পরিচালক শুভংকর সাহাকে তলব করা হয়েছে।

মঙ্গলবার বিচারপতি মো. আশফাকুল ইসলাম ও বিচারপতি মোহাম্মদ আলীর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের দ্বৈত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদেশে হাইকোর্ট আগামী ১২ মার্চ শুভংকর সাহাকে আদালতে হাজির হয়ে বঙ্গবন্ধুর ছবি খুঁজে না পাওয়া এবং পাকিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট আইয়ুব খান ও গভর্ণর মোনায়েম খানের ছবি সংযোজনের বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়েছে।

আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন এবিএম আলতাফ হোসেন। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল আল আমিন সরকার। বাংলাদেশ ব্যাংকের পক্ষে ছিলেন  জুবায়ের রহমান।

এবিএম আলতাফ হোসেন গণমাধ্যমকে বলেন, ‘তদন্ত প্রতিবেদনে ইতিহাস বিকৃতির বিষয়টি উঠে এসেছে। আজ শুনানি নিয়ে আদালত বইটির সম্পাদককে তলবের পাশাপাশি বইগুলো বাজেয়াপ্তের নির্দেশ দিয়েছেন।’

এর আগে গতকাল সোমবার বইটিতে ইতহাস বিকৃতির তদন্তে প্রতিবেদন দাখিল করা হয়। অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থবিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. জাফর উদ্দীনের নেতৃত্বে চার সদস্যের কমিটিতে অর্থমন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের এবিএম রুহুল আজাদ, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব মু. মোহসিন চৌধুরী ও মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব (আইন) স্মৃতি কর্মকার সদস্য ছিলেন।

প্রতিবেদনে ‘বাংলাদেশ ব্যাংকের ইতিহাস’ বইয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি অন্তর্ভুক্ত না করায় ইতিহাস বিকৃতির মতামত দেয়া হয়। বইটিতে জাতির পিতার ছবি অন্তর্ভুক্ত করা অত্যাবশ্যক ছিল। কিন্তু ছবি খুঁজে পাওয়া যায়নি এ যুক্তিতে তা বইতে না দেওয়া অনাকাঙ্ক্ষিত ও অনভিপ্রেত বলেও বলা হয় প্রতিবেদনে।

গেল বছরের ২ অক্টোবর বাংলাদেশ ব্যাংকের ইতিহাস বইটিতে ইতিহাস বিকৃতি নিয়ে রিট করা হলে অভিযোগ তদন্ত করে অর্থ সচিবকে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন হাইকোর্ট।

একই সঙ্গে বইটিতে পাকিস্তানের তৎকালীন প্রেসিডেন্ট আইয়ুব খান, পূর্ব পাকিস্তানের গভর্নর মোনায়েম খানের ছবি অন্তর্ভুক্ত করা হলেও জাতির পিতার ছবি অন্তর্ভুক্ত না করে ইতিহাস বিকৃতি করা কেন আইনগত কর্তৃত্ববহির্ভূত ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন আদালত।

ঢাকাটাইমস/১৯ফেব্রুয়ারি/ডিএম

সংবাদটি শেয়ার করুন

আদালত বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :