ঐক্যফ্রন্টের গণশুনানি শুক্রবার, ডাকা হবে না জামায়াতকে

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২১:০০ | প্রকাশিত : ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২০:৫৭

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোট ডাকাতির অভিযোগ এনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট যে গণশুনানির আয়োজন করেছে তা দুই দিন এগিয়ে আনা হয়েছে। আগামী রবিবার এই শুনানি হওয়ার কথা থাকলেও নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী তা শুক্রবার হবে। এই শুনানিতে জামায়াতে ইসলামীর কোনো প্রার্থীকে ডাকা হবে না বলে সিদ্ধান্ত হয়েছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রধান নেতা ড. কামাল হোসেন মতিঝিলের কার্যালয়ে সাংবাদিকদের জানান এই সিদ্ধান্তের কথা। এর আগে ঐক্যফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

ড. কামাল জানান, ২২ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির মিলনায়তনে সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত এ শুনানি অনুষ্ঠিত হবে। তারিখ এগিয়ে আনার কারণ সম্পর্কে তিনি বলেন, জায়গা পাওয়া যাচ্ছিল না কোথাও। তাই দুদিন এগিয়ে আনা হয়েছে।

গত নির্বাচনে জামায়াতে ইসলামীর প্রার্থীরাও ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করেছেন। তাদেরকে গণশুনানিতে ডাকা হবে কি না এ ব্যাপারে এক প্রশ্নের জবাবে কামাল হোসেন বলেন, ‘এগুলো আমার জানা নেই।’ তবে এ সময় পাশ থেকে ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম নেতা আ স ম আবদুর রব বলেন, জামায়াত তো ঐক্যফ্রন্টে নেই, তাই এ প্রশ্ন অবান্তর।

এসময় গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসিন মন্টু বলেন, ‘নির্বাচনে ফ্রন্টে জামায়াত ছিল না।’ আর গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি সুব্রত চৌধুরী বলেন, ‘আপনারা তো উদ্দেশ্যমূলক প্রশ্ন করেন। বলা হলো তো জামায়াতে ইসলামী ছিল না।’

রব জানান, বাম গণতান্ত্রিক জোটের প্রার্থীরা গণশুনানিতে থাকবে। এছাড়া চরমোনাই পীরের নেতৃত্বাধীন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থীদের ডাকা যায় কি না এ ব্যাপারে তারা ভাববেন।

জামায়াতে ইসলামীর সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল আবদুর রাজ্জাক গত ১৫ ফেব্রুয়ারি লন্ডন থেকে পাঠানো এক বিবৃতিতে দল ছাড়ার ঘোষণা দেন। এছাড়া একাত্তরে বিতর্কিত ভূমিকার জন্য জামায়াতকে ক্ষমা চাওয়ার পরামর্শ দেন। এ প্রসঙ্গে এক প্রশ্নের জবাবে কামাল হোসেন বলেন, ‘ক্ষমা চাওয়ার বিষয়কে আমি স্বাগত জানাই।’

বৈঠকে ঐক্যফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটির সদস্য ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, বিএনপির আবদুল মঈন খান, আবদুস সালাম, গণফোরামের সুব্রত চৌধুরী, মোস্তফা মহসিন মন্টু, জগলুল হায়দার আফ্রিক, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের হাবিবুর রহমান তালুকদার খোকা, নাগরিক ঐক্যের মাহমুদুর রহমান মান্না, শহিদুল্লাহ কায়সার, বিকল্পধারার নুরুল আমিন ব্যাপারী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

(ঢাকাটাইমস/১৯ফেব্রুয়ারি/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :