রাজশাহীর উন্নয়নে পাশে থাকবে নরওয়ে

ব্যুরো প্রধান, রাজশাহী
 | প্রকাশিত : ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৮:০০

রাজশাহী মহানগরীর উন্নয়নে সব সময় পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছে নরওয়ে। বুধবার দুপুরে রাজশাহী সিটি করপোরেশনের (রাসিক) মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এ আশ্বাস দেন বাংলাদেশে নিযুক্ত দেশটির রাষ্ট্রদূত সিডসেল ব্লেকেন।

দুপুরে নগর ভবনে তারা এই মতবিনিময় করেন। এ সময় সিডসেল ব্লেকেন বলেন, নরওয়ে এবং বাংলাদেশের বন্ধুত্ব দীর্ঘদিনের। আগামীতে আমাদের পারস্পারিক সম্পর্ক আরও সুদৃঢ় হবে। আমরা রাজশাহীর উন্নয়নে পাশে থাকবো।

রাষ্ট্রদূত বলেন, এটি আমার প্রথম রাজশাহী সফর। ক্লিনসিটি-গ্রিনসিটি রাজশাহী দেখে অভিভূত।

মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, প্রথমবার মেয়র থাকাকালে নরওয়ের সঙ্গে রাজশাহীর বন্ধুত্বপূর্ণ ভালো সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল। সে সময় নরওয়ে সফরে গিয়েছিলাম। কিন্তু ২০১৩ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত আমি দায়িত্বে না থাকায় সেই সম্পর্ক চলমান হয়নি। আমি আবারো মেয়র নির্বাচিত হয়েছি, আশা করছি এখন নরওয়ের সঙ্গে রাজশাহীর সম্পর্ক বাড়বে।

মেয়র বলেন, রাজশাহী কৃষিপ্রধান অঞ্চল। এ অঞ্চলে তেমন শিল্পপ্রতিষ্ঠান গড়ে ওঠেনি। আমি রাজশাহীর মানুষের জন্য কর্মসংস্থান সৃষ্টি করতে চাই। সরকার রাজশাহীতে ইতিমধ্যে তিনটি শিল্পাঞ্চল অনুমোদন দিয়েছে। আমার পরিকল্পনা রাজশাহীতে শতাধিক গার্মেন্ট-শিল্প গড়ে তোলার। এ জন্য নরওয়ের বিনিয়োগকারীদের রাজশাহীতে বিনিয়োগের অনুরোধ করছি।

লিটন বলেন, আমরা একে অপরের জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা শেয়ারের মাধ্যমে উপকৃত হতে পারি। আমি আশা করছি আগামীতে রাজশাহী এবং নরওয়ের মধ্যকার বন্ধুত্ব আরও বেশি গাঢ় ও কার্যকর হবে।

এ সময় মেয়র রাজশাহীর উন্নয়নে নরওয়ের বন্ধুত্বের হাতকে আরও বেশি প্রসারিত করার আহ্বান জানান। নরওয়ের রাষ্ট্রদূত মেয়রকে সর্বাত্মক সহায়তার আশ্বাস দেন।

এর আগে সিডসেল ব্লেকেন নগর ভবনে সৌজন্য সাক্ষাতে এলে তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন। এ সময় সিডসেল ব্লেকেনকে নগর ভবনের বঙ্গবন্ধু কর্নার ঘুরে দেখান মেয়র। তিনি মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামানসহ চার জাতীয় নেতার সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য তুলে ধরেন তিনি।

নরওয়ে প্রতিনিধি দলে ছিলেন টর এনব্রেস টরহাগ, মারিয়া টরহাগ, পোন্ট্রাস, ব্রেজহেগেন, ডেগ ভিগসহ রাজশাহী ক্রিস্ট্রিয়ান ফ্রেন্ডশিপ কমিটির সদস্যরা। রাষ্ট্রদূতসহ তাদের শুভেচ্ছা উপহার প্রদান করেন মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন। এ সময় মেয়র লিটনকেও শুভেচ্ছা উপহার দেন তারা।

(ঢাকাটাইমস/২০ফেব্রুয়ারি/আরআর/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :