চকবাজার ট্রাজেডি: চাঁদপুরে সিদ্দিকের বাড়িতে চলছে মাতম

চাঁদপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২২:১৪

রাজধানীর চকবাজারে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় চাঁদপুরের হাজীগঞ্জের গর্ন্ধব্যপুর উত্তর ইউনিয়নের কাজী মোহাম্মদ আবু বক্কর সিদ্দিক মারা গেছেন। এই ঘটনায় একই এলাকার ইসমাঈল হোসেন বুধবার রাত থেকে নিখোঁজ রয়েছেন। সিদ্দিক ওই ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর গ্রামের কাজিমউদ্দিন বেপারী বাড়ির কাজী আবুল হোসেনের ছেলে।

নিহত সিদ্দিক ও নিখোঁজ ইসমাঈলের এলাকাবাসী ও পরিবার সূত্রে জানা গেছে, সিদ্দিক বেশ কয়েক বছর ধরে চকবাজার এলাকায় ছোট-খাট ব্যবসা করে আসছেন। আর ইসমাঈল ছোটবেলা থেকে চকবাজারে ব্যবসা করার সুবাদে বড় ব্যবসায়ীদের একজন।

নিহত সিদ্দিকের বাবা আবুল হোসাইন জানান, বুধবার রাতে টিভিতে খবর দেখে ছেলেকে ফোন দিলে ফোনটি বারবার বেজে যাচ্ছিল, কিন্তু ফোনটি রিসিভ করেনি। এক সময় ফোনটি বন্ধ হয়ে গেলে ঢাকায় বসবাসরত আত্বীয়-স্বজনকে সেখানে পাঠাই। বৃহস্পতিবার ভোরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সিদ্দিকের লাশ পাওয়া যায়। এরপরেই বৃহস্পতিবার সকালে বাড়ি থেকে লোকজন ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হয়ে গেছেন লাশ আনার জন্য।

অপরদিকে হাজী ইসমাঈলের চাচাতো ভাই আক্তার হোসেন জানান, হাজীগঞ্জের নিখোঁজ হাজী ইসমাঈল সপরিবারের ঢাকায় বসবাস করছেন। তিনি বাড়িতে তেমন একটা আসতেন না। চকবাজরের আগুন লাগার খবর শুনে আমরা বিভিন্নভাবে যোগাযোগ করেছি জানতে। কিন্তু বৃহস্পতিবার দুপুর পর্যন্ত পরিবারের কেউ ইসমাঈলের অবস্থান জানাতে বা জানতে পারছেন না।

স্থানীয় ৯নং গর্ন্ধব্যপুর উত্তর ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম মিলিটারী  জানান, আমরা যেটুকু জানি আমাদের এলাকার ইসমাঈল হাজী আর সিদ্দিক চকবাজারে আগুনে মারা গেছেন। সেখানে আমার ছেলেসহ এলাকার বেশকয়েক গেছে। নিহতদের লাশ আনার জন্য আমার যা কিছু করার সব করব।

নিহত ছিদ্দিকুর রহমানের মৃত্যুর খবর শুনে তার মা নুরের নেছা অজ্ঞান হয়ে পড়েছেন। চলছে পরিবার পরিজনের আহাজারি।

ইসমাইল হোসেনের ভাই লিটন জানান, সব হাসপাতালসহ স্বজনদের কাছে খুঁজেছি- এখনো তার খোঁজ মিলেনি। ওই মার্কেটে তার একটি দোকান ছিল। তার সাথে থাকা কয়েকজন জানিয়েছে, তার পরনের কাপড়ে আগুন লেগেছে। তার পর থেকে তাকে আর খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

(ঢাকাটাইমস/২১ফেব্রুয়ারি/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :