প্যারিসে শহীদ মিনারে প্রবাসীদের ঢল

এ,কে,মামুন, ফ্রান্স
 | প্রকাশিত : ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৭:৫২

তৃতীয়বারের মত প্যারিসে কমিউনিটির সকল বিবেদ ভুলে রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের মিলিত প্রয়াসে উদযাপিত হলো মহান শহীদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস।

সম্মিলিত একুশ উদযাপন পরিষদের উদ্যোগে কর্মব্যস্ততার দিনেও সকল বয়সের বাঁধ ভাঙা উচ্ছ্বাস নিয়ে রিপাবলিকে একুশের সাজে জড়ো হন প্রবাসীরা। সকলের মিলিত কণ্ঠে একুশের গান আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি।

শহীদ মিনারে ফুল দিতে আসেন অনেক বিদেশিরাও। শিশু থেকে বৃদ্ধ সবার হাতে হাতে ছিল ফুল। রিপাবলিকে শহীদ মিনার ও এর আশপাশ এলাকা হয়ে ওঠে লোকে লোকারণ্য।

ঢাকা চকবাজারে অগ্নিকাণ্ডে নিহতদের স্মরণে এক মিনিট নীরবতা পালনের পর   ফ্রান্সে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত কাজী ইমতিয়াজ হোসেইন রিপাবলিকে অস্থায়ী শহীদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন।

তারপর একে একে ফ্রান্সের বিভিন্ন গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ছাড়াও প্রায় শ’খানেক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

এসময় রাষ্ট্রদূত সম্মিলিত একুশ উদযাপনের প্রশংসা করে বলেন, ফ্রান্সজুড়ে বাংলা ভাষার আওয়াজ প্রসারিত হয়েছে। সম্মিলিত উদ্যোগে একুশের ব্যাপকতা বাড়িয়ে তুলতে হবে একই সাথে সর্বস্তরে বাংলা প্রচলনের এবং ভাষা ও বর্ণমালা সংরক্ষণের দাবি জানান তিনি।

তিনি বলেন, ভাষা দিবসকে কেন্দ্র করে সম্মিলিত আয়োজন ফ্রান্সে শক্তিশালী বাংলাদেশি কমিউনিটি গড়ে তুলবে।

এরপর একে একে বাংলাদেশ দূতাবাস প্যারিস, সম্মিলিত একুশ উদযাপন পরিষদ ফ্রান্স, সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগ, ফ্রান্স আওয়ামী লীগ, ফ্রান্স আওয়ামী লীগ সমন্বয় কমিটি, মুক্তিযোদ্ধা সংহতি পরিষদ ফ্রান্স, জিয়ার সৈনিক ফ্রান্স, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন, জাতীয় পার্টি ফ্রান্স, জাতীয় শ্রমিক লীগ, প্যারিস মহানগর আওয়ামী লীগ, সর্ব ইউরোপিয়ান যুবদল, ফ্রান্স যুবলীগ, ফ্রান্স ছাত্রলীগ, অল ইউরোপিয়ান বাংলা প্রেসক্লাব, প্যারিস বাংলা প্রেসক্লাব, ইউরোপিয়ান প্রবাসী বাংলাদেশি অ্যাসোসিয়েশন ইপিবিএ, স্বরলিপি সাংস্কৃতিক শিল্পী গোষ্ঠী, ছাতক দোয়ারা জনকল্যাণ পরিষদ, সুনামগঞ্জ সদর ওয়েল ফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন, জালালাবাদ অ্যাসোসিয়েশন, গাজীপুর জেলা সমাজ কল্যাণ সমিতি, বিয়ানীবাজার উপজেলা সমাজ কল্যাণ সমিতি, বিয়ানীবাজার সমাজ কল্যাণ সমিতি, চাঁদপুর জনকল্যাণ সমিতি, বিয়ানীবাজার জনকল্যাণ ট্রাস্ট, সংলাপ পাঠক মেলা, কুমিল্লা মহানগর অ্যাসোসিয়েশন ফ্রান্স, বরিশাল বিভাগীয় কমিউনিটি, সিলেট বিভাগ সমাজ কল্যাণ সমিতি, বরিশাল বিভাগীয় কল্যাণ পরিষদ, কানাইঘাট অ্যাসোসিয়েশন ফ্রান্স, বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন ফ্রান্স, দিরাই উপজেলা সমাজ কল্যাণ সমিতি, রংপুর বিভাগ সমিতি ফ্রান্স, কুলাউড়া ওয়েল ফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন, অ্যাসোসিয়েশন সাই পারি, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ প্যারিস ফ্রান্স, সুনামগঞ্জ জেলা সমাজ কল্যাণ সমিতি, বিশ্বনাথ উপজেলা এসোসিয়েশন, কসবা খাসা ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট, দোহার নবাবগঞ্জ ঐক্য পরিষদ, ফসে আভেক রাব্বানী, ফ্রান্স বাংলা স্কুল, সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত পরিষদ, আর্টিস্ট আংট, বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামী লীগ ফ্রান্স, নারায়ণগঞ্জ জেলা সমিতি, ইপিএস বাংলা, বৃহত্তর নোয়াখালী ও বৃহত্তর চট্টগ্রামসহ ফ্রান্সের শতখানেক সংগঠন।

শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা জানাতে আসেন বিভিন্ন সংগঠনের কর্মী ও সাধারণ মানুষ। পরে একে একে ফুল দিয়ে জাতির মহান সন্তানদের স্মরণ করেন তারা। পুষ্পস্তবক অর্পণের সময় শহীদ মিনারে আসা মানুষের স্লোগানে পুরো এলাকা মুখরিত হয়ে ওঠে। অনেকে একুশের গান গেয়ে শহীদদের স্মরণ করেন।

ৱ্যালি ও পুষ্পস্তবক অর্পণের পুরোটা সময় শহীদ মিনারে আসা বিভিন্ন সংগঠনের কর্মী, সাধারণ মানুষ স্লোগানে স্লোগানে পুরো এলাকা মুখরিত করে রাখেন। প্রশাসনের পক্ষ থেকে শহীদ মিনার ঘিরে নিরাপত্তার ব্যবস্থা নেয়া হয়।

আগামী প্রজন্ম বাংলা ভাষা অর্জনে ও আমাদের গৌরবান্বিত ইতিহাস জানতে এবং ধারণ করতে পারবে এরকম আয়োজনের মাধ্যমে বলে জানান আয়োজকরা। পাশাপাশি জাতিসংঘের দাপ্তরিক ভাষা বাংলার দাবি ও প্যারিসে স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণের জন্য সকল সংগঠনকে উদ্যোগী হওয়ার আহ্বান জানান তারা।

(ঢাকাটাইমস/২২ফেব্রুয়ারি/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

প্রবাসের খবর বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :