তুরাগতীরে বিআইডব্লিউটিএর অভিযান

চার হাউজিংয়ের ১৬ ভবনসহ ৫৭ স্থাপনা উচ্ছেদ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৪ মার্চ ২০১৯, ১৯:৪৩ | প্রকাশিত : ১৩ মার্চ ২০১৯, ১৭:২৭

তুরাগ নদ দখল করে গড়ে তোলা চারটি হাউজিং গুঁড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডাব্লিউটিএ)। সরকারি সংস্থাটি অবৈধ দখল উচ্ছেদ অভিযানের ১৭তম দিনে আজ বুধবার এই চার হাউজিংয়ের ৫৭টি স্থাপনা উচ্ছেদ করেছে।

আজ সকালে মোহাম্মদপুরের ঢাকা উদ্যান, রামচন্দ্রপুর ও সাভারের ভাকুর্তা থানার বড়বরদেশী মৌজার তুরাগ নদের তীরভূমিতে উচ্ছেদ অভিযান চালানো হয়। সেখানে নদের তীরভূমিতে সিলিকন সিটি, আকাশ নীলা ওয়েস্টার্ন সিটি, অনির্বাণ হাউজিং ও তুরাগ হাউজিং নামের আবাসন প্রতিষ্ঠান অবৈধভাবে স্থাপনা গড়ে তুলেছে।

উচ্ছেদ অভিযানে এসব হাউজিংয়ের ছোট-বড় মোট ৫৭টি স্থাপনা গুঁড়িয়ে দেওয়ার কথা নিশ্চিত করেন বিআইডাব্লিউটিএর যুগ্ম পরিচালক এ কে এম আরিফ উদ্দিন। এর মধ্যে রয়েছে ১৩টি একতলা ভবন, একটি দোতলা ভবন, একটি তিনতলা, একটি চারতলাসহ মোট ১৬টি পাকা ভবন। এ ছাড়া ১০টি আধাপাকা স্থাপনা ও ৩১টি সীমানা প্রাচীর উচ্ছেদ করা হয়।

আগামীকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় মোহাম্মদপুর থানার রামচন্দ্রপুর এলাকা ও তুরাগ নদের বিপরীত পাশে অভিযান পরিচালনা করা হবে বলে জানান বিআইডাব্লিউটিএর যুগ্ম পরিচালক।

এর আগে প্রথম পর্বের উচ্ছেদ অভিযানে চার পর্যায়ে মোট ১২ কার্যদিবস উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করে বিআইডাব্লিউটিএ। এ সময় বুড়িগঙ্গা-তুরাগ নদী দখল করে নদীর দুই পাড়ে গড়ে ওঠা অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। প্রথম পর্বে ছোট-বড় মিলিয়ে মোট ১ হাজার ৭২১টি স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়।

উচ্ছেদকৃত অংশ নদীর প্রবাহ স্বাভাবিক করতে ড্রেজিং করা হবে। দ্বিতীয় পর্যায়ে ১২ কার্যদিবস এবং তৃতীয় পর্যায়ে ১২ কার্যদিবস উচ্ছেদ অভিযানের মাধ্যমে নদীর প্রায় ৩০ কিলোমিটার এলাকা দখলমুক্ত করা হবে। এরপর সেখানে ওয়াকওয়ে নির্মাণ, সবুজায়ন ও লাইটটিংয়ের কাজ হাতে নেবে বিআইডাব্লিউটিএ। এ জন্য ব্যয় ধরা হয়েছে সাড়ে আট শ কোটি টাকা।

(ঢাকাটাইমস/১৩মার্চ/কারই/মোআ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :