আইনজীবী ছাড়াই সৌদি নারীর বিচার শুরু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ১৪ মার্চ ২০১৯, ১৩:৫৮ | প্রকাশিত : ১৪ মার্চ ২০১৯, ১৩:০৬

গত বছর গ্রেপ্তার হওয়া লুজাইন আল হাথলুলের পক্ষে কোনো আইনজীবী ছাড়াই বিচার শুরু করেছে সৌদির আরবের আদালত। গত বছর কয়েকজন নারী অধিকার কর্মীর সঙ্গে গ্রেপ্তার হন লুজাইন৷ বুধবার তার মামলা আদালতে উঠলেও তিনি কোনো আইনজীবী পাননি৷ খবর বিবিসির।

লুজাইন আল-হাথলুল প্রথম খবরে উঠে আসেন ২০১৪ সালে৷ গাড়ি চালিয়ে সৌদি আরব থেকে আরব আামিরাতের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন তিনি৷ সেই সময় সৌদি আরবে নারীদের গাড়ি চালানোর ওপর কড়া নিষেধাজ্ঞা ছিল৷

এরপর ২০১৮ সালের মে মাসে গ্রেপ্তার হন তিনি৷ লুজাইন আল-হাথলুলসহ গ্রেপ্তার হওয়া আরও কয়েকজন নারী অধিকার কর্মী এই নিষেধাজ্ঞার বিরোধিতা করে আসছিলেন বেশ অনেক দিন ধরেই৷ তাদের গ্রেপ্তারের কয়েক সপ্তাহ পরই নারীদের গাড়ি চালানোর অনুমতি দেয় সৌদি।

লুজাইনের পরিবারের সদস্যরা অভিযোগ করেছেন, গ্রেপ্তারের পর তাকে মারধর করা হয়েছে৷ তার সঙ্গে যৌন হেনস্থা করা হয়েছে বলেও মনে করেন তারা৷

বুধবার বিচার শুরু হলেও অভিযুক্তের অধিকারের যে নিয়ম, তা অমান্য করে লুজাইনকে কোনো আইনজীবী বরাদ্দ করেনি সৌদি কর্তৃপক্ষ৷ পাশাপাশি, তার বিরুদ্ধে ঠিক কী কী অভিযোগ রয়েছে, সেটাও তাকে জানানো হয়নি বলে জানিয়েছে লুজাইনের পরিবার৷

মানবাধিকার সংগঠন অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল এক টুইটে এই অবিচারের বিরোধিতা করে আল-হাথলুলের নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেছে৷

সৌদি আরবের যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান ক্ষমতায় আসার পর একের পর এক নতুন আইন প্রণয়ন করেন৷ নারীদের গাড়ি চালাতে পারার আইনটিও ছিল তার অন্যতম৷ এছাড়া সিনেমা প্রদর্শন ও নির্মাণশিল্প প্রতিষ্ঠাসহ নানা ঐতিহাসিক সংস্কারমূলক কাজের অনুমতি দিয়েছে সৌদি।

ঢাকা টাইমস/১৪মার্চ/একে

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :