শনিবার শুরু জাতীয় এসএমই পণ্য মেলা

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৪ মার্চ ২০১৯, ২০:২৮

শনিবার থেকে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে শুরু হচ্ছে সাত দিনব্যাপী ৭ম জাতীয় এসএমই পণ্য মেলা। শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন এমপি সকাল ১১ টায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের ‘হল অব ফেম’-এ মেলাটি উদ্বোধন করবেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে থাকবেন শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার এমপি এবং শিল্প সচিব আবদুল হালিম।

মেলা উপলক্ষ্যে বৃহস্পতিবার ফাউন্ডেশনে আয়োজিত প্রেস ব্রিফিংয়ে এসএমই ফাউন্ডেশনের চেয়ারপারসন কে এম হাবিব উল্লাহ এ তথ্য জানান।

এ বছরে সারা দেশ থেকে ২৮০টি এসএমই উদ্যোক্তা প্রতিষ্ঠান তাদের উৎপাদিত পণ্য নিয়ে এই মেলায় অংশগ্রহণ করবে। উদ্যোক্তাদের মধ্যে ১৮৮জন নারী এবং ৯২জন পুরুষ অংশগ্রহণ করবেন। মেলায় দেশে উৎপাদিত পাটজাত পণ্য, খাদ্য ও কৃষি প্রক্রিয়াজাত পণ্য, চামড়াজাত সামগ্রী, ইলেকট্রিক্যাল ও ইলেকট্রনিক্স সামগ্রী, লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং পণ্য, আইটি পণ্য, প্লাস্টিক ও অন্যান্য সিনথেটিক, হস্তশিল্প, ডিজাইন ও ফ্যাশনওয়্যারসহ অন্যান্য মাইক্রো, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের স্বদেশী পণ্য প্রদর্শিত ও বিক্রয় হবে। কোন বিদেশি পণ্য মেলায় প্রদর্শন ও বিক্রয় যাবে না। মেলাটি আগামী ২২মার্চ পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল ১০ টা থেকে রাত ৮ টা পর্যন্ত চলবে। মেলায় কোন প্রবেশ মূল্য নাই।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, এসএমই ফাউন্ডেশন ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প উদ্যোক্তাদের পণ্যের বাজারজাতকরণে সহায়তা প্রদানের লক্ষ্যে বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করে যাচ্ছে। এরই অংশ হিসাবে উদ্যোক্তাদের উৎপাদিত পণ্যের প্রচার, প্রসার, বিক্রয় এবং ক্রেতা-বিক্রেতার সংযোগ স্থাপনের লক্ষ্যে এই বছরে ২৩টি জেলা সদরে একইসঙ্গে চলবে এ মেলা। জেলাগুলো হলো- নীলফামারী, দিনাজপুর, রংপুর, গাইবান্ধা, বগুড়া, পাবনা, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, কুষ্টিয়া, যশোর, খুলনা, জামালপুর, ময়মনসিংহ, টাঙ্গাইল, কিশোরগঞ্জ, নরসিংদী, ফরিদপুর, বরিশাল, ঝালকাঠি, সিলেট, মৌলভীবাজার, কুমিল্লা, নোয়াখালী ও রাঙ্গামাটি।

জাতীয় এসএমই পণ্য মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের সামগ্রিক অর্থনৈতিক উন্নয়নে এসএমই উদ্যোক্তাদের অবদান ও অংশগ্রহণকে স্বীকৃতি প্রদানের লক্ষ্যে এসএমই ফাউন্ডেশন পুরুষ ও নারী ক্যাটাগরিতে ‘জাতীয় এস এম ই উদ্যোক্তা পুরস্কার-২০১৯’ প্রদান করবে। 

এছাড়া মেলা উপলক্ষ্যে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে চারটি সেমিনার আয়োজন করা হবে।

সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জাবাবে এস এম ই ফাউন্ডেশনের চেয়ারপারসনকে এম হাবিব উল্লাহ  বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে অন্যান্য ব্যাংকের মাধ্যমে এক লাখ ৪০ হাজার কোটি টাকা ক্ষুদ্র ও নারী উদ্যোক্তাদের দেওয়া হয় বলে জানানো হয়েছে। কিন্তু বাস্তবে এসএমই খাতের ঋণ চলে যাচ্ছে অন্যখাতে। এ টাকা কোথায যায় এমন প্রশ্নের জাবাবে তিনি বলেন, এটা বাংলাদেশ ব্যাংক ভালো বলতে পারবে।

তিনি বলেন, এসএমই উদ্যেগতাদের জন্য সহজ শর্তে ঋণ প্রয়োজন। এমএমই ফাউন্ডেশন সহজ শর্তে ঋণ দিচ্ছে। কিন্তু প্রয়োজনীয় অর্থের অভাবে তারা চাহিদা মতো ঋণ দিতে পারছেন না।

এসএমই ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সফিকুল ইসলাম বলেন,  যেহেতু এ মেলায় দেশিয় উদ্যেক্তাদের পণ্য বিক্রি হবে তাই ক্রেতারাও ভালো মানের পণ্য পাবেন। দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে এখানে উদ্যেক্তারা আসবে। আশা রাখি মিডিয়ায় তাদের কর্মকাণ্ড প্রচার করা হবে।

ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের সংগঠন ন্যাশনাল অ্যাসোসিয়েশন অব স্মল অ্যান্ড কটেজ ইন্ডাস্ট্রিজ অব বাংলাদেশ (নাসিব) এর সভাপতি মির্জা নূরুল গণী শোভন বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের নিয়ম অনুযায়ী ক্ষুদ্র ও মাঝারি নারী উদ্যোক্তারা জামানত ছাড়া ২৫ লাখ টাকা ঋণ পাওয়ার কথা। কিন্তু ঢাকা ও চট্টগ্রামের কিছু নারী উদ্যোক্তা ছাড়া অন্যান্য জেলার ব্যাংক থেকে এই ঋণ পাচ্ছেন না।

(ঢাকাটাইস/১৪মার্চ/জেআর/ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

অর্থনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :