নিউজিল্যান্ডে হামলায় নিহত সামাদের স্ত্রী বেঁচে আছেন

রংপুর ব্যুরো, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৫ মার্চ ২০১৯, ২১:১২ | প্রকাশিত : ১৫ মার্চ ২০১৯, ২১:০৮
বন্দুকধারীদের হামলায় নিহত ড. আব্দুস সামাদ

নিউজিল্যান্ডে ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে বন্দুকধারীদের হামলায় নিহত কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে কৃষিতত্ত্ব বিভাগের সাবেক শিক্ষক ড. আব্দুস সামাদের স্ত্রী কেশোয়ারা সুলতানা মারা যাননি বলে জানিয়েছেন তাদের বড় ছেলে তোহা মুহাম্মদ।

শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টা ৪০ মিনিটে মোবাইল ফোনে বিষয়টি নিশ্চিত করেন তিনি। এ সময় তোহা ঢাকার মিরপুরে অবস্থান করছিলেন।

তোহা বলেন, ‘আমার মায়ের সঙ্গে চল্লিশ মিনিট আগে মোবাইল ফোন কথা হয়েছে। তিনি সুস্থ আছেন।’

নিহত ড. আব্দুস সামাদ কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলার মধুরহাইল্যা গ্রামের জামাল উদ্দিন সরকারের বড় ছেলে।

তিনি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষিতত্ত্ব বিভাগের সাবেক শিক্ষক। ২০১৩ সালে চাকরি ছেড়ে নাগরিকত্বসহ স্ত্রী ও তিন ছেলেকে নিয়ে স্থায়ীভাবে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ শহরে বসবাস শুরু করেন। এ সময় তিনি ‘মসজিদে নুর’-এ মোয়াজ্জিন হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন। পরে বড় ছেলে তোহা মোহাম্মদ দেশে ফিরে আসেন। সেখানে থেকে যান অপর দুই ছেলে তারেক, তানভির ও ড. সামাদের স্ত্রী কেশোয়ারা সুলতানা।

তোহা আরো বলেন, ‘নিউজিল্যান্ডে মায়ের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি জানান- ঘটনার পরপরেই তিনি ছুটে গেছেন হাসপাতালে। কিন্তু পুলিশ ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাদের বলেছেন গুরুতর আহতদের চিকিৎসা চলছে। পরিস্থিতি শান্ত না হওয়া পর্যন্ত তারা কোনো কিছুই প্রকাশ করবে না। তাই তারা নিশ্চিত করে বলতে পারছেন না তার বাবা মৃত না জীবিত। অবশ্য বিকালে তার বাবার মৃত্যু খবর নিশ্চিত হয়েছে।’

এদিকে ড. আব্দুস সামাদ নিহতের সংবাদ পৌরসভার মধুরহাইল্যা গ্রামে তার নিজ বাড়িতে পৌঁছালে শোকে কাতর হয়ে পড়েন স্বজনরা।

এদিকে, বিভিন্ন মিডিয়াতে তার মায়ের মৃত্যুর খবর প্রকাশ করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন তোহা।

(ঢাকাটাইমস/১৫মার্চ/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :