নিউজিল্যান্ডে মসজিদে হামলা

আদালতে মুচকি হাসছিলেন হামলাকারী ব্রেন্টন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ১৬ মার্চ ২০১৯, ১৩:০৪

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে শুক্রবার দু’টি মসজিদে হামলায় অন্তত ৪৯ জনকে হত্যার পর শনিবার হামলাকারী ব্রেন্টন ট্যারান্টকে আদালতে হাজির করা হয়। তবে এমন নারকীয় কর্ম সম্পাদনের পরও আদালতে সে ছিল শান্ত ও নির্লিপ্ত। চেহারায় অনুতাপের লেশমাত্র দেখা যায়নি। বরঞ্চ আদালত মুচকি হাসছিল এই সন্ত্রাসী।   আদালত থেকে বের হওয়ার সময়ও সাংবাদিকদের সামনে হেসে পোজও দেন সন্ত্রাসী ব্রেন্টন। খবর ডেইলি মেইলের।

শনিবার আদালত তোলা হয় ২৮ বছর বয়সি অস্ট্রেলীয় নাগরিক ট্যারান্টকে। কয়েদির পোশাকে হাতকড়া লাগানো অবস্থায় বিচারকের সামনে নিয়ে আসা হয় তাকে। এদিন দক্ষিণ অইল্যান্ডে হাইকোর্টে পেশ করা হয় ব্রেন্টনকে। বিচারকের সামনে একটি কথাও বলতে শোনা যায়নি তাকে। পুরো বিচার পর্বই তাকে ঠোঁট চেপে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গিয়েছে কাঠগড়ায়। তবে সাংবাদিকদের উদ্দেশে মাঝে মাঝে শুধু হাতের ইশারায় বোঝাবার চেষ্টা করছিল, সব ঠিক আছে।

পুরো সময়ই ছিল শান্ত। পুলিশ কর্মকর্তারা যখন হাতকড়া পরিয়ে আদালতে নিয়ে আসছিলেন ব্রেন্টনকে, তখন আদালত চত্ত্বরেই ছিলেন কয়েকশো সাংবাদিক। ছিলেন চিত্র সাংবাদিকরা। ট্যারান্টকে দেখেই ছবি তুলতে তৎপর হয়ে উঠেন তারা। এসময় সাংবাদিকদের সামনে মুচকি হেসে পোজ দেয় সে।

জানা গিয়েছে, জামিনের কোনও আবেদন জানানো হয়নি ট্যারান্টের তরফে। তার নাম গোপন রাখারও কোনও আবেদন ছিল না। তবে বিচারক পল কেলার হামলাকারী ট্যারান্টের ছবি তোলা ও ফুটেজ নেওয়ার অনুমতি দিলেও তিনি বিচার সম্পর্কিত অধিকার বজায় রাখতে ছবি প্রকাশের সময় মুখ ঝাপসা করে দেওয়ার নির্দেশ দেন।

ঢাকা টাইমস/১৬মার্চ/একে

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :