এসএমই উদ্যোক্তাদের ঋণ বাড়ানোর আহ্বান শিল্পমন্ত্রীর

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৬ মার্চ ২০১৯, ২০:৪৫ | প্রকাশিত : ১৬ মার্চ ২০১৯, ১৩:৪২

বড় বড় শিল্প প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি ক্ষুদ্র ও মাঝারি (এমএমই) উদ্যোক্তাদের দিকে নজর দেয়ার তাগিদ দিয়ে শিল্পমন্ত্রী নূরুলমজিদ মাহমুদ হুমায়ুন বলেছেন, বড় বড় যারা আছেন, তেল ওয়ালার মাথা আরও তেল না দিয়ে ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের সহজে ও কম সুদে ঋণ বাড়িয়ে দিন। এতে আমাদের কর্মসংস্থান বাড়বে।

রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) আয়োজিত সাতদিন ব্যাপী আয়োজিত সপ্তম জাতীয় এসএমই পণ্য মেলার-২০১৯ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মন্ত্রী ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের উদ্দেশে এসব কথা বলেন।

শিল্পমন্ত্রী বলেন, ক্ষুদ্র উদ্যোক্তারা যে মূলধন পেয়েছেন তা যথেষ্ট নয়। তাদের জন্য মূলধন আরও সহজীকরণ ও বাড়ানোর দরকার। এতে আরও কর্মসংস্থান তৈরি করতে পারব।

বঙ্গবন্ধ শেখ মুজিবুর রহমান পাকিস্তান আমলেই এমন চিন্তা করেছেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, যখনই সুযোগ পেয়েছেন, তখন ক্ষুদ্র কুটির শিল্প সংস্থা তিনি করেছেন। সেখানে আমাদের অনেক সুযোগ আছে।

তিনি বলেন, আজকে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে গ্লোবাল ফ্যামিলিতে চলে গেছে বাংলাদেশ। আমাদেরআজ অনুকরণীয় অনেক কিছু হয়।

স্বাধীনতার পর আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলেই বড় বড় কাজ হয়। বিসিক যেমন বঙ্গবন্ধু করেছেন, তেমন তার কন্যা শেখ হাসিনা করেছেন এসএমই ফাউন্ডেশন। যার মাধ্যমে দেশব্যাপী নতুন উদ্যোক্তা তৈরি হচ্ছে।

শিল্পমন্ত্রী বলেন, তারা (ক্ষুদ্র উদ্যোক্তারা) বাংলাদেশের অর্থনৈতিতে যে অবদান রাখছেন তা উল্লেখ করার মতো। আমরা ১ কোটি ২১ লাখ কর্মসংস্থান সৃষ্টি অঙ্গীকার করেছি। এসএমই ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে স্ব স্ব দক্ষতায় উদ্যোক্তা ও কর্মসংস্থান সৃষ্টি করায় তাদের ধন্যবাদ জানাই।

শেখ হাসিনার সরকার নারীদের উন্নয়নে প্রাধান্য দিয়ে থাকে। এসএমই মাধ্যমে নারী জাগরণ হচ্ছে। একসময় নারীদের কাটত অবসর সময়। তারা স্বামী নির্ভর ছিলেন। আত্মনির্ভরশীল ছিলেন না। আজ তারা উপার্জনক্ষম হওয়ার সাথে সাথে সম্মানিতও হচ্ছেন। এটা একটা বিশাল অর্জন। এটার বিস্তৃতি আরও বাড়াতে হবে।

তিনি বলেন, এই মেলা বিশাল একটি উদ্যোগ। এতে প্রায় ৩’শ মতো স্টল আছে। তাই নারীদের দেশিয় পণ্য তৈরিতে আঞ্চলিক ভিত্তিতে সহযোগিতা করলে, কম সুদে সহজে ঋণ দিতে হবে।

ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের উদ্দেশে শিল্পমন্ত্রী বলেন, বড় বড় তেলের মাথায় তেল দেওয়া কমিয়ে যদি কিছুটা এদের (ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের) দেন, তাহলে অনেকটাই সরকারের পরিকল্পনা বাস্তবায়ন হবে। দেশের কর্মসংস্থান বাড়বে।

শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার বলেন, বেশি বেশি করে উদ্যোক্তা সৃষ্টি করতে হবে।অন্যথায় গ্রামে জীবন মানের উন্নয়ন হবে না। দেশের উন্নয়ন হবে না।

তিনি এ সময় মন্ত্রীর কাছে ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের ৫শতাংশ হারে সুদের ব্যবস্থা করার অনুরোধ জানান। একই সঙ্গে তিনি সকল বিমানবন্দরে এসএমই পণ্য প্রদর্শন ও বিক্রয়ের ব্যবস্থা রাখা এবং দূতাবাসগুলোতেও একই ব্যবস্থা রাখা হয়, সে ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশও করেন।

এসএমই ফাউন্ডেশনের চেয়ারপার্সন কেএম হাবিব উল্লাহ সভাপত্বে অনুষ্ঠানের অন্যদের মধ্যে শিল্প সচিব আবদুলহালিমসহ সারাদেশ থেকে আগত ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তারা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি সারাদেশের মধ্যে বর্ষসেরা ছয় জন ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাকে পুরস্কার তুলে দেন।

এসএমই পণ্য মেলায় ২৮০টি এসএমই উদ্যোক্তা প্রতিষ্ঠান তাদের উৎপাদিত পণ্য নিয়ে এই মেলায় অংশগ্রহণ করেছে। এদের মধ্যে ১৮৮জন নারী ও ৯২জন পুরুষ উদ্যোক্তা।