রাজধানীতে ‘সুপ্রভাত’ পরিবহনের বাস চলবে না: মেয়র

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৯ মার্চ ২০১৯, ১৫:৫৬ | প্রকাশিত : ১৯ মার্চ ২০১৯, ১৪:০৯

রাজধানীতে সুপ্রভাত পরিবহনের কোনো বাস চলবে না বলে জানিয়েছেন মেয়র আতিকুল ইসলাম। তিনি বলেন, ‘আমি অলরেডি বলে দিয়েছি এ বাস বন্ধ করতে।’
মেয়র বলেন, ‘এ ধরনের সড়ক দুর্ঘটনা রোধে বাসের মালিকদের সংযুক্ত করা হবে। এছাড়া সড়কে শৃঙ্খলা আনা সম্ভব না। এ কাজটি আমরা খুব দ্রুত করবো।

মঙ্গলবার সকালে সুপ্রভাত বাসের চাপায় মারা যান বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালের (বিইউপি) শিক্ষার্থী আবরার আহমেদ চৌধুরী। এ ঘটনার পর  বেলা ১১টার দিকে প্রগতি সরণির রোডের নর্দ্দাতে দুর্ঘটনা স্থলে যান মেয়র।

এসময় প্রগতি সরণির রোডের নর্দ্দাতে ফুটওভার ব্রিজ করে দেয়ার ঘোষণা  দেন ঢাকা উত্তরের মেয়র আতিকুল ইসলাম।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের দাবির মুখে মেয়র  ঘোষণা দেন আগামী দুই থেকে তিন মাসের মধ্যে ওভারব্রিজ করে দেয়া হবে।

মেয়র বলেন, ‘সড়ক সংশ্লিষ্ট যতগুলো সমস্যা রয়েছে সেগুলো সমাধানে তোমরা আমাদের সঙ্গে থাকো। আমরা একটি একটি করে সমস্যা চিহ্নিত করে তা সমাধানে কাজ করবো। আমি এখান থেকে যাচ্ছি না। আমি তোমাদের সঙ্গে বসে সমস্যা নিয়ে আলোচনা করবো। প্রয়োজনে আমরা এখনই সমাধানের জন্য মুভ করবো।’
‘ঘাতক বাসচালকের বিচারের দাবির বিষয়ে তিনি বলেন, ‘ঘাতক চালকের বিচার করতেই হবে। দেশের প্রচলিত আইন অনুযায়ী তার সর্বোচ্চ বিচার হবে।’
সকাল ৭টায় প্রগতি সরণিতে সুপ্রভাত বাসের ধাক্কায় আবরার আহমেদ চৌধুরী নামে নিহত হন। এ ঘটনায় ঘাতক বাস চালক সিরাজুল (২৯) কে আটক করা হয়েছে। এর পর থেকে ওই এলাকার সড়কে অবস্থান নিয়ে শিক্ষার্থীরা আন্দোলন করছে।

এসময় বিইউপির শিক্ষার্থীরা লিখিতভাবে ১২ দফা দাবি পেশ করেন। মেয়র ঘটনাস্থল থেকে সরাসরি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলে ব্যবস্থা নেয়ার কথাও জানান শিক্ষার্থীদের। 

তাদের ১২ দফা দাবির মধ্যে অন্যতম হচ্ছে,

১. ১০ দিনের মধ্যে সুপ্রভাত বাসের চালক হেলপার ও মালিকের ফাঁসি।

২. সুপ্রভাত ও জাবালে নূরসহ যেসব বাস আজ এবং এর আগে দুর্ঘটনা ঘটিয়েছে সেসব বাসের রুট পারমিট বাতিল।

৩. বাসচালক ও হেলপারের ডোপ টেস্ট করতে হবে।

৪. বাসসহ গণপরিবহনের চালক হেলপারের আইডি কার্ড ভিজিবল করা।

৫. বসুন্ধরা আবাসিক/ যমুনা ফিউচার পার্কের সামনে জেব্রা ক্রসিংসহ নিহত আবরারের ফুটওভার ব্রিজ করতে হবে দুই মাসের মধ্যে।

এসময় মেয়র বলেন, ‘আগামী দুই মাস কিংবা সর্বোচ্চ ৩ মাসের মধ্যে এই জায়গায় আবরার চৌধুরীর নামে ফুটওভার ব্রিজ করে দেব। আপনারা আমাকে একটু সময় দেন। এ ঘটনায় আপনাদের মাঝে থেকে ২/৫ জনকে নিয়ে আমরা একটি কমিটি গঠন করবো। প্রয়োজনে আপনাদের সঙ্গে নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছে যাবো। আপনাদের দাবি-দাওয়া নিয়ে আলোচনা করবো।’

(ঢাকাটাইমস/১৯মার্চ/বিইউ/ওআর)

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :