২৮ মার্চ পর্যন্ত স্থগিত আন্দোলন

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২০ মার্চ ২০১৯, ১৮:১২ | প্রকাশিত : ২০ মার্চ ২০১৯, ১৭:০৭

বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের (বিইউপি) শিক্ষার্থী আবরারের বাসচাপায় নিহতের ঘটনায় বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা আন্দোলন স্থগিত করেছেন। ঢাকা উত্তর সিটির (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলামের আশ্বাসের ভিত্তিতে তারা ২৮ মার্চ পর্যন্ত আন্দোলন স্থগিতের ঘোষণা দেন।এই সময়ের দাবি মানা না হলে আবারো আন্দোলনের নামার কথা বলেছেন শিক্ষার্থীরা।

বুধবার বেলা দুইটার দিকে মেয়র আতিকুলের সঙ্গে বৈঠকে বসেন বিইউপি শিক্ষার্থীদের ১০ সদস্যের প্রতিনিধি দল। দুই ঘণ্টার বেশি সময়ের এই বৈঠকে ডিএমপি কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া, বিইউপি উপাচার্য মেজর জেনারেল এমদাদ উল বারীসহ পরিবহনসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠক শেষে বিইউপির আইন বিভাগের শিক্ষার্থী তাওহিদুজ্জামান তাদের আন্দোলন ২৮ মার্চ পর্যন্ত স্থগিত করার ঘোষণা দেন।

আন্দোলনরত কয়েকজন বিইউপি শিক্ষার্থী জানান, দুপুরে মেয়রের পক্ষ থেকে পাঠানো গাড়ি করে তার কার্যালয় যান প্রতিনিধি দলের সদস্যরা। বৈঠকে আট দফা ও নতুন করে তিন দফা দাবি নিয়ে মেয়রের সঙ্গে আলোচনা করা হয়।

মেয়র বলেছেন শিক্ষার্থীদের দাবিগুলো আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে বাস্তবায়নের জন্য যথাসম্ভব চেষ্টা করবেন তিনি।

আতিকুল ইসলামের বলেন,শিক্ষার্থীরা যে আট দফা দাবি দিয়েছে, সেগুলো অত্যন্ত যৌক্তিক দাবি। এসব দাবির সঙ্গে আমরাও একমত। তারা আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে এসব দাবি বাস্তবায়নের শর্তে আন্দোলন স্থগিত করতে রাজি হয়েছে। আমরা এই সময়ের মধ্যে তাদের সব দাবি বাস্তবায়নের যথাসাধ্য চেষ্টা করব।

বৈঠকে উপস্থিত থাকা ডিএমপির যুগ্ম কমিশনার (অপরাধ) শেখ নাজমুল আলম  বলেন, আলোচনার ভিত্তিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন সাত দিনের জন্য স্থগিত করা হয়েছে। এ তথ্য শিক্ষার্থীরা সব জায়গায় জানিয়ে দেবে বলে তাদের সঙ্গে আমাদের কথা হয়েছে।

শিক্ষার্থীদের দাবির মধ্যে উল্লেখযোগ্য তিনটি হলো-আবরারকে বাসচাপা দেওয়া চালকের ফাঁসি কার্যকর, জাবলে নূর ও সুপ্রভাত পরিবহনের সব অনুমোদন বাতিল ও ঢাকার সব হকার উচ্ছেদ করে ঝুঁকিপূর্ণ এলাকায় ওভার ব্রিজ বা আন্ডারপাস নির্মাণ করা।

মঙ্গলবার বাসচাপায় বিইউপি শিক্ষার্থী আবরারের নিহতের ঘটনায় রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ জানান রাজধানীর বিভিন্ন স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীরা। গেলবারের নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের মতই এবারেও রাজধানীর বিভিন্ন মোড়ে তারা গাড়ি চালকের লাইসেন্স চেক করেন।

আবরারের নিহতের ঘটনায় তার বাবার করা মামলায় গ্রেপ্তার সুপ্রভাত পরিবহনের চালক সিরাজুলকে ৭ দিনের রিমান্ডে পেয়েছে পুলিশ। এর আগেও এক তরুণীকে বাসচাপা দিয়ে গুরুতর আহত করেছেন বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে।

(ঢাকাটাইমস/২০মার্চ/ডিএম/বিইউ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজধানী বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :