সড়ক আন্দোলনে উস্কানি দিচ্ছে বিএনপি: হানিফ

কুষ্টিয়া প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২১ মার্চ ২০১৯, ১৩:০৭

নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীরা যে আন্দোলন করছে তাতে বিএনপি উস্কানি দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ। এভাবে অন্যের আন্দোলনে সুযোগ খোঁজা বিএনপির দেউলিয়াত্বের প্রমাণ বলে মনে করেন তিনি।

বৃহস্পতিবার সকালে কুষ্টিয়া শহরের নিজ বাসায় সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছিলেন হানিফ।

গত সোমবার সকালে রাজধানীতে সুপ্রভাত পরিবহনের একটি বাসের চাপায় নিহত হন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী আবরার আহমদ চৌধুরী। এরপর শিক্ষার্থীরা নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলন শুরু করলে গতকাল অনেকটা স্থবির হয়ে যায় রাজধানী ঢাকা। পরে সরকারের পক্ষ থেকে আশ্বাস পেয়ে আগামী ২৮ মার্চ পর্যন্ত আন্দোলন স্থগিত করে শিক্ষার্থীরা।

ছাত্রদের এই আন্দোলনে বিএনপি সমর্থন দেয়। দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন এক অনুষ্ঠানে বলেন, ছাত্রদের এই আন্দোলনে আমাদের সম্পূর্ণ সমর্থন আছে। এছাড়া দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীও আনুষ্ঠানিকভাবে এই আন্দোলনে সমর্থন দেন।

হানিফ বলেন, ‘ছোটখাট ইস্যুতে বিএনপি উস্কানি দিচ্ছে। নিরাপদ সড়কের দাবিতে ছাত্রদের আন্দোলনেও বিএনপি সরকারের বিরুদ্ধে উস্কানি দিচ্ছে। আসলে এমন উস্কানি দিয়ে তাদের কোনো লাভ নেই। নিজেদের ক্ষমতা না থাকলে উস্কানি দিয়ে কোনো লাভ নেই। এসব উস্কানি দিয়ে বিএনপি রাজনৈতিকভাবে আরও দেউলিয়াত্বের প্রমাণ দিচ্ছে।’

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বক্তব্যের সমালোচনা করে আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, ‘মির্জা ফখরুলের যদি ন্যূনতম লজ্জাবোধ থাকতো তাহলে এতিমের টাকা আত্মসাতের অভিযোগে নেত্রী দণ্ডিত হওয়ার কারণে দল থেকে বহু আগেই পদত্যাগ অথবা দুর্নীতির কারণে দল থেকে দুর্নীতিবাজ খালেদা জিয়াকে অপসারণ করা উচিত ছিল। তা না করে বিএনপি সব সময় তাদের অপকর্ম ঢাকতে সরকারের ওপর দায় চাপানোর চেষ্টা করছে।’

উপজেলা নির্বাচন বিষয়ে হানিফ বলেন, ‘বিগত দুই ধাপে ভোটারদের উপস্থিতি কম থাকলেও ভোট অনেকটা শান্তিপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে।’ একই সঙ্গে আগামী নির্বাচনে ভোটারদের উপস্থিতি বাড়বে বলেও মনে করেন তিনি।

দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের চিকিৎসা প্রসঙ্গে হানিফ বলেন, ‘তার বাইপাস সার্জারি সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছে। আগামী দুই এক সপ্তাহের মধ্যে সুস্থ হয়ে তিনি দেশে ফিরবেন বলে আশা করছি।’

এ সময় জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী রবিউল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আজগর আলী, শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি তাইজাল আলী খানসহ আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ-সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

(ঢাকাটাইমস/২১মার্চ/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :