মানবকল্যাণে সমাজ পরিশোধনের আহ্বান মুফতি ফয়জুল করিমের

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৪ মার্চ ২০১৯, ২০:৫৯ | প্রকাশিত : ২৪ মার্চ ২০১৯, ২০:০৭

মানবকল্যাণে নিয়োজিত হয়ে সমাজকে পরিশোধন করতে নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ইসলামি আন্দোলন বাংলাদেশ’র সিনিয়র নায়েবে আমির মুফতি সৈয়দ মোহাম্মদ ফয়জুল করীম।

রবিবার দুপুরে পুরানা পল্টনস্থ আইএবি মিলনায়তনে ইসলামি শ্রমিক আন্দোলনের কেন্দ্রীয় স্টিয়ারিং কমিটি ঘোষণা ও শপথ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ আহ্বান জানান।

ফয়জুল করীম বলেছেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০ বছর হতে চললেও সুদ, ঘুষ, দুর্নীতি, টেন্ডারবাজি, চাঁদাবাজি, খুন, ধর্ষণ, আইন অমান্য করার কারণে সড়ক, বাসা-বাড়ি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান কোথাও মানুষের জান-মালের নিরাপত্তা নেই।

তিনি বলেন, দেশের মানুষ কোথাও নিজেদেরকে নিরাপদ মনে করে না। এর কারণ রাষ্ট্র, সমাজ আজ কলুষিত। শ্রমিকরা কলে কারখানায় সড়কে প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছেন। গরিব মানুষের পরিবার হাহাকার করছে। তাই ইসলামি শ্রমিক আন্দোলনের সকল স্তরের নেতা-কর্মী সাধ্য অনুযায়ী মানবকল্যাণে নিয়োজিত হতে হবে। এতে অনিরাপদ রাষ্ট্র পরিশোধন হয়ে বসবাস উপযোগী একটি কল্যাণকর রাষ্ট্র হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

ইসলামি শ্রমিক আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সভাপতি অধ্যাপক মোহাম্মদ আশরাফ আলী আকনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক হাফেজ মাও. ছিদ্দিকুর রহমানের পরিচালনায় শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন আলহাজ মো. আব্দুর রহমান, আলহাজ জান্নাতুল ইসলাম, ক্যাপ্টেন অব. মো. ইবরাহিম, ডা. নাছির উদ্দীন, শহিদুল ইসলাম কবির, মাওলানা মামুনুর রশীদ, মাওলানা আবুল কালাম আজাদ, মো. নাসিম খান, মো. মিজানুর রহমান প্রমুখ।

সভাপতির বক্তব্যে অধ্যাপক মোহাম্মদ আশরাফ আলী আকন বলেন, মালিক শ্রমিক দ্বন্দ্ব করে কল-কারখানা উৎপাদন বন্ধ এবং দেশের উন্নয়নকে বাধাগ্রস্ত করে শ্রমিক নেতা সেজে নিজেদের আখের গোছানোর সংগঠন ইসলামি শ্রমিক আন্দোলন নয়।

তিনি বলেন, ইসলামি শ্রমিক আন্দোলন চায় মালিক-শ্রমিক সুসম্পর্ক তৈরি করে কল-কারখানা সচল রেখে দেশের উন্নয়ন-উৎপাদন অব্যাহত রাখতে। একই সঙ্গে শ্রমিকের ন্যায্য অধিকার ও মর্যাদা প্রতিষ্ঠা করতে। তিনি জাতীয় শ্রমিক কনভেনশনে ঘোষিত কৃষক-শ্রমিকের অধিকার ও মর্যাদা প্রতিষ্ঠায় ১৭ দফা প্রতিষ্ঠায় গণ আন্দোলন গড়ে তোলার আহবান জানান।

অনুষ্ঠানে মোহাম্মদ আশরাফ আলী আকনকে সভাপতি, হাফেজ মাও. ছিদ্দিকুর রহমান সাধারণ সম্পাদক ও আলহাজ মো. আব্দুর রহমানকে সিনিয়র সহ-সভাপতি করে ৭৩ সদস্য বিশিষ্ট ইসলামি শ্রমিক আন্দোলনের কেন্দ্রীয় স্ট্রিয়ারিং কমিটি ঘোষণা করা হয়।

ঢাকাটাইমস/২৪মার্চ/ ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজধানী বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :