ব্রেকআপের পরও যেভাবে তারা ‘তামাশা’ করেছিলেন

বিনোদন ডেস্ক
 | প্রকাশিত : ১৫ এপ্রিল ২০১৯, ১০:০৬

প্রেম ভেঙে গেলে দুটি মানুষের মধ্যে সাধারণত তীক্ততা তৈরি হয়। বিশেষ করে, তারা যদি হন অভিনয় জগতের তারকা তাহলে তো মুখ দেখাদেখি বন্ধ হয়ে যায়। এমনকী, একসঙ্গে ছবি পর্যন্ত করেন না।

এর সবচেয়ে বড় উদাহরণ সালমান খান ও ঐশ্বরিয়া রাই জুটি। ১৯৯৯ সালে ‘হাম দিল দে চুকে সানম’-এর শুটিং সেট থেকে তাদের প্রেম হয়েছিল এবং ২০০২ সালে ব্রেকআপ হয়। এরপর থেকে দীর্ঘ ১৭ বছর তারা মুখ দেখাদেখি তো দূরে থাক, আর কোনো ছবিতে একসঙ্গে অভিনয় করেননি।

কিন্তু এ ক্ষেত্রে ব্যতিক্রম সাবেক প্রেমিক-প্রেমিকা জুটি দীপিকা পাড়ুকোন ও রণবীর কাপুর। ২০১৩ সালে ‘ইয়ে জাওয়ানি হ্যায় দিওয়ানি’ ছবির সেট থেকে তাদের প্রেম শুরু হয়েছিল, থেমে গিয়েছিল এক বছর বাদেই।

ব্রেকআপ হওয়ার পরেই দীপিকা-রণবীর ইমতিয়াজ আলি পরিচালিত ‘তামাশা’ ছবিতে জুটি বেঁধেছিলেন। সেখানে দুই তারকার অভিনয় সমালোচকদের প্রচুর প্রশংসা কুড়িয়েছিল।

‘তামাশা’র ‘বেদ’ আর ‘তারা’র সেই ক্যাফের প্রেমের দৃশ্য নিয়ে আজও বলিউডে চর্চা হয়। সবার মনেই জানার আগ্রহ, বিচ্ছেদের পরেও ওই রকম প্রেমের দৃশ্যে কীভাবে অভিনয় করেছিলেন তারা। সম্প্রতি সেটাই জানালেন ছবির পরিচালক ইমতিয়াজ আলি।

তার কথায়, ‘দুইদিন লেগেছিল দীপিকা-রণবীরের ক্যাফের সেই আবেগঘন প্রেমের দৃশ্যের শুটিং করতে। এতই সুন্দর অভিনয় করছিলেন দুজনে যে কাট বলতে অসুবিধা হচ্ছিল।’

এছাড়াও চরিত্রে ছিল, বেদ খুব খারাপ ব্যবহার করবে তারার সঙ্গে। এই শট দেয়ার পর রণবীর-দীপিকা দুজনেই খুব ইমোশনাল হয়ে যেত। একে-অপরকে সরি বলত। তবে ছবিতে তাদের চরিত্র খুব সুন্দর করে ফুটিয়ে তুলেছিলেন। ততদিনে রণবীর সিংয়ের সঙ্গে প্রেম শুরু হয়ে গেছে দীপিকার।’

‘তামাশা’ মুক্তি পেয়েছিল ২০১৫ সালে। এটিকে ইমতিয়াজ আলি তার পরিচালিত সেরা ছবি মনে করেন। কিন্তু সে ছবি বক্স অফিসে সাফল্য আনতে না পারলেও পরিচালকের মনে এখনও গেঁথে আছে ছবির প্রতিটি দৃশ্য। সেই সঙ্গে রণবীর-দীপিকার অভিনয়।

ঢাকাটাইমস/১৫এপ্রিল/এএইচ

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিনোদন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :