রাজীবের হাত বিচ্ছিন্ন ও মৃত্যু মামলায় প্রতিবেদন হয়নি

আদালত প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৮ এপ্রিল ২০১৯, ১৮:১০

দুই বাসের রেষারেষিতে তিতুমীর কলেজের স্নাতক দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র রাজীব হোসেনের এক হাত বিচ্ছিন্ন হওয়ার পর মৃত্যুর মামলায় প্রতিবেদন দাখিলের তারিখ পিছিয়ে আগামী ২ মে ঠিক করেছে আদোলত।

আজ বৃহস্পতিবার ঢাকা মহানগর হাকিম সরাফুজ্জামান আনছারী এ নতুন তারিখ ঠিক করেন।
মামলার আসামি বিআরটিসি বাসের চালক মো. ওয়াহিদ (৩৫) ও স্বজন পরিবহনের বাসের চালক মো. খোরশেদ (৫০) বর্তমানে কারাগারে রয়েছেন।

আসামিদের গত ৫ এপ্রিল ২ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে আদালত। এরপর গত ৮ এপ্রিল আসামিদের রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠানো হয়। পরে ৩ দফা জামিনের আবেদন করা হলেও তা নামঞ্জুর হয়।

গত বছরের ৩ এপ্রিল বিআরটিসির একটি দোতলা বাসের পেছনের ফটকে দাঁড়িয়ে গন্তব্যে যাচ্ছিলেন রাজীব হোসেন (২১)। হাতটি বেরিয়ে ছিল সামান্য বাইরে। হঠাৎই পেছন থেকে স্বজন পরিবহনের একটি বাস বিআরটিসির বাসটি গা ঘেঁষে ওভারটেক করার সময় রাজীবের ডান হাত শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। দু-তিনজন পথচারী দ্রুত তাকে পান্থপথের শমরিতা হাসপাতালে নিয়ে যান। কিন্তু চিকিৎসকেরা চেষ্টা করেও বিচ্ছিন্ন হাতটি রাজীবের শরীরে আর জুড়ে দিতে পারেননি।
দুই সপ্তাহ পর ১৬ এপ্রিল দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান রাজীব।
মামলাটি প্রথমে দ-বিধির ২৭৯ ও ৩৩৮(ক) ধারায় দায়ের করা হয়। পরে রাজিব মারা যাওয়ায় ধারা পরিবর্তন করে দ-বিধির ৩০৪(ক) অন্তর্ভুক্ত করা হয়।

(ঢাকাটাইমস/১৮এপ্রিল/মোআ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আদালত বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :