স্ত্রীকে হত্যা ও আগুনে পোড়ানোর দায় স্বীকার স্বামীর

আদালত প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৮ এপ্রিল ২০১৯, ১৯:৫৮ | প্রকাশিত : ১৮ এপ্রিল ২০১৯, ১৯:৪৫

রাজধানীর মুগদায় স্ত্রী হাসি আক্তারকে (২৩) শ্বাসরোধ করে হত্যার পর আগুন দিয়ে পোড়ানোর দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন স্বামী কোমল হোসেন।

আজ বৃহস্পতিবার ঢাকা মহানগর হাকিম মিল্লাত হোসেন এ আসামির স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করার পর তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মুগদা থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) মাসুদুর রহমান এ আসামিকে আদালতে হাজির করে স্বেচ্ছায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করার আবেদন করেন।

এর আগে বুধবার সকালে ১/৩৯ দক্ষিণ মুগদা এলাকার ব্যাংক কলোনি সালামউল্লাহর বাড়ির তৃতীয় তলা থেকে হাসির পোড়া মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তার গ্রামের বাড়ি দিনাজপুরের পার্বতীপুরে।

পরে ওই ঘটনায় নিহতের বাবা মুগদা থানায় মামলা করেন। মামলার পর স্বামী কমল হোসেনকে গ্রেপ্তার করা হয়।
মুগদা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রলয় কুমার সাহা জানান, ‘প্রথমে গলা টিপে হাসিকে হত্যা করেন কোমল। এরপর পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। আগুনে হাসির দুই পাসহ শরীরের বেশ কিছু অংশ পুড়ে যায়।’

স্থানীয়রা জানান, দক্ষিণ মুগদার ব্যাংক কলোনি এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতেন এ দম্পতি। মাস দুয়েক আগে এই বাসায় ওঠেন তারা।

পারিবারিক সূত্র জানায়, আটমাস আগে হাসি ও কোমল ভালোবেসে বিয়ে করেন। উভয়েরই এটি দ্বিতীয় বিয়ে। হাসির আগের ঘরে একটি কন্যাসন্তান রয়েছে। তবে হাসি-কোমল দম্পতির মধ্যে প্রায় সময়ই ঝগড়া লেগে থাকত। ঘটনার আগের রাতেও তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়।

(ঢাকাটাইমস/১৮এপ্রিল/মোআ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আদালত বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :