বাঁচানো গেল না ‘স্ত্রীর স্বীকৃতি চাইতে গিয়ে’ দগ্ধ তরুণীকে

নিজস্ব প্রতিবেদক, লক্ষ্মীপুর
 | প্রকাশিত : ২২ এপ্রিল ২০১৯, ১৫:২৮

স্ত্রীর স্বীকৃতি চাইতে গিয়ে লক্ষ্মীপুরে আগুনে দগ্ধ শাহেনুর আক্তার মারা গেছেন। সোমবার সকালে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

নিহত শাহেনুর আক্তার চট্টগ্রামের রাউজান উপজেলার সোনাগাজি গ্রামের জাফর আলমের মেয়ে।

এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রবিবার রাতে চরফলকন ইউনিয়ন পরিষদের ৪নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য হাফিজ উদ্দিন, একই ওয়ার্ডের গ্রাম পুলিশ আবু তাহের, অভিযুক্ত সালাউদ্দিনসহ চারজনকে আটক করেছে পুলিশ।

এর আগে গতকাল বিকালে কমলনগর উপজেলার চরফলকনের আইয়ুবনগর এলাকার একটি সয়াবিন ক্ষেত থেকে দগ্ধ অবস্থায় ওই তরুণীকে উদ্ধার করে স্থানীয় এলাকাবাসী। পরে তাকে কমলনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হয়ে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

গতকাল সন্ধ্যায় জেলা পুলিশ সুপার আ স ম মাহাতাব উদ্দিন সদর হাসপাতালে ওই তরুণীকে দেখতে গিয়ে সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন, তরুণী নিজে গায়ে আগুন দিয়েছে না অন্য কেউ দিয়েছে, সে বিষয়টি এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে ইউপি সদস্য হাফিজ উদ্দিন ও গ্রাম পুলিশসহ চারজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে।

গতকাল রাতে সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকার সময় ওই তরুণী জানিয়েছিলেন, মোবাইল ফোনে সালাউদ্দিনের সঙ্গে পরিচয়ের পর প্রায় দেড় বছর আগে তাদের বিয়ে হয়। কিন্তু ছয় মাস আগে জানতে পারেন সালাউদ্দিন বিবাহিত। একথা শুনেও কিছুদিন আগে স্ত্রীর স্বীকৃতির দাবিতে তিনি কমলনগর আসেন।

স্ত্রীর স্বীকৃতির দাবিতে ফের শুক্রবার তিনি লক্ষ্মীপুরে যান। স্বীকৃতি চাওয়ায় সালাউদ্দিন তার শরীরে আগুন ধরিয়ে দেয়। সালাউদ্দিন পেশায় রিকশাচালক। তার বাবার নাম মহর আলী।

কমলনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. ইকবাল হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। এ বিষয়ে জড়িত কেউ ছাড় পাবে না বলে জানান তিনি।

ঢাকাটাইমস/২২এপ্রিল/প্রতিনিধি/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :