রমজানে পণ্যমূল্য স্বাভাবিক রাখতে বাণিজ্যমন্ত্রীর চিঠি

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২২ এপ্রিল ২০১৯, ২০:০০
ফাইল ছবি

আসন্ন রমজান মাসে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের মজুদ, সরবরাহ ও মূল্য স্বাভাবিক রাখতে ১৭ এপ্রিল বিভাগীয় কমিশনারকে চিঠি দিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

চিঠিতে রমজান মাসের নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য ভোক্তা জনসাধারণের কাছে ন্যায্যমূল্যে মানসম্পন্ন পণ্য সরবরাহের বিষয়ে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা আবদুল লতিফ বকসী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এছাড়া স্থানীয় পর্যায়ে পণ্যের মূল্য সহনীয় পর্যায়ে রাখা এবং জেলা ও উপজেলায় বাজারে পণ্য সরবরাহ ও মজুদ অটুট রাখা, নির্বিঘ্নে পণ্য পরিবহন, অবৈধ মজুদ প্রতিরোধ এবং পণ্যমূল্য সহনীয় পর্যায়ে রাখতে মোবাইল কোর্ট কার্যক্রম জোরদারসহ প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য দেশের সব জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিয়েছেন মন্ত্রী।

প্রতি বছর রমজানে একটি চক্র নিত্যপণ্যের দাম বাড়িয়ে দেয় বলে অভিযোগ রয়েছে। নতুন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি এজন্য আগেই এ ব্যাপারে সতর্কতা অবলম্বন করছেন। গত ২৭ মার্চ তিনি এ ব্যাপারে ব্যবসায়ী এবং বিভিন্ন সংস্থার প্রধানদের সঙ্গে বৈঠকও করেছেন।

সেদিন রমজানে কোনো নিত্যপণ্যের দাম বাড়বে না বলে আশ্বাস দিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘আসন্ন রমজান মাসে কোনো পণ্যের মূল্য বাড়বে না এবং সরবরাহে ঘাটতি থাকবে না। চাহিদার তুলনার অনেক বেশি পণ্য মজুদ রয়েছে।’

গত বছরের তুলনায় বর্তমানে অনেক পণ্যের মূল্য কম রয়েছে জানিয়ে টিপু মুনশি বলেন, ‘সরবরাহ চেইনে কোনো সমস্যা নেই। আসন্ন রমজান মাসে কোনো নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য বৃদ্ধির সঙ্গত কোনো কারণ নেই। পণ্য পরিবহনে যাতে কোনো ধরনের চাঁদাবাজি না হয়, সেজন্য প্রয়োজনীয় কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এ ক্ষেত্রে কোনো ছাড় দেয়া হবে না।’

মন্ত্রী বলেন, ‘প্রতিটি জেলার প্রশাসন এ বিষয়ে উপযুক্ত কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করবে। নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য ও সরবরাহ স্বাভাবিক রাখতে ব্যবসায়ীদের সহযোগিতা কামনা করা হয়েছে। আসন্ন পবিত্র রমজান মাসে দায়িত্বশীল আচরণ করে ব্যবসায়ীদের দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে হবে।’

(ঢাকাটাইমস/২২এপ্রিল/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

অর্থনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :